বিনোদন

এক বছরও হয়নি ছোট ছেলে জেহ-র, বছরের শুরুতে আবার সুখবর দিলেন করিনা কাপুর খান

বছরভর বিভিন্ন কারণে খবরের শিরোনামে বারবার উঠে আসেন অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী করিনা কাপুর খান (Kareena Kapoor Khan)। ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ বা পারিবারিক কোনো কারণ, পার্টি করা, স্বামী-সন্তান, করোনায় আক্রান্ত হওয়া সব কিছুর জন্য‌ই তিনি এই বছর বারবার আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছেন।

পাপারাৎজিদের ক্যামেরায় প্রায়ই বন্দী হন করিনা। তিনি নিজেও সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাক্টিভ। ২০২১ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারি জন্ম হয় করিনার দ্বিতীয় পুত্রসন্তানের। প্রথম সন্তান তৈমুরকে তিনি প্রথম থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ও জনসমক্ষে নিয়ে এসেছিলেন। ফলাফল হিসেবে তৈমুরের ব্যক্তিগত জীবনে বাইরের লোকের আনাগোনা বা ব্যক্তিগত পরিসরে ঢুকে পড়া খানিকটা হলেও বিরক্তির সৃষ্টি করেছিল। দ্বিতীয় পুত্র সন্তানের জন্মের পর তিনি এক‌ই কাজ আর করেননি। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন সময় ছবি পোস্ট করলেও তাতে ছোট ছেলের মুখ স্পষ্ট করে তিনি কখনোই দেখাননি।

আরও পড়ুন:   শ্যামা নয়, অন্য নায়িকার সাথে রোমান্টিক নাচ করলেন ‘কৃষ্ণকলি'র নিখিল, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

করিডর দ্বিতীয় পুত্র সন্তানের নাম ‘জেহ’। তাঁর লেখা বই ‘প্রেগনেন্সি বাইবেল’ থেকে জানা গেছে ছোট ছেলের পুরো নাম জাহাঙ্গীর আলি খান। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে তিনি ছোট ছেলের একটি হাসি মুখের ছবি পোস্ট করেছেন। যেখানে জেহ-র দুটি দাঁত দেখা যাচ্ছে, করিনা ক্যাপশনে লিখেছেন,”২০২১ সালের সবথেকে সেরা উপহার ওর দুটো দাঁত। সবার নতুন বছর ভালো কাটুক।” হ্যাশট্যাগে দিয়ে তিনি ‘#31st December’ ‘#Mera Beta’-ও উল্লেখ করেছেন। কিছুদিন আগে এক পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার সময় পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় সপরিবারে ধরা পড়েন করিনা, সেই ছবি থেকে তাঁর ছোট ছেলের মুখ স্পষ্টভাবে অনুগামীরা দেখতে পান।

আরও পড়ুন:   কালো ফিনফিনে শাড়িতে উন্মুক্ত নাভি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুললেন অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার

দ্বিতীয় পুত্র সন্তানের জন্মগ্রহণের পরেই তার নামকরণের জন্য ট্রোলিংয়ের মুখে পড়তে হয় করিনাকে। এক মুঘল সম্রাটের নামে নাম রাখায় অনেক উল্টোপাল্টা কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় করিনার উদ্দেশ্যে বলা হয়। এমন কী ‘দেশদ্রোহী’, ‘হিন্দু নামের কলঙ্ক’ প্রভৃতিও বলা‌ হয় তাঁকে।

আরও পড়ুন:   দুই সন্তানকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য, ট্রোলের বিরুদ্ধে মোক্ষম জবাব দিলেন করিনা কাপুর খান

Related Articles

Back to top button