বর্ধমানের সাধারণ মেয়ে থেকে টলি স্টার! সিনেমার গল্পকে হার মানাবে শুভশ্রীর জীবন কাহিনী

801

চলতি বছরের 3 রা নভেম্বর 31 বছর বয়সে পা দিলেন শুভশ্রী গাঙ্গুলী (Subhasree Ganguly)। পরিচালক রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty)-র স্ত্রী ও ইউভান (Yuvan)-এর মা হওয়ার পাশাপাশি তিনি একজন সফল নায়িকা। কলকাতার মেয়ে না হয়েও টলিউডের বুকে নিজের রাজত্ব কায়েম করেছেন শুভশ্রী। আজ তিনি আরবানার মতো বিলাসবহুল কমপ্লেক্সে থাকলেও শুরুর দিক এত মসৃণ ছিল না।

বাংলা ফিল্মের অন্যতম নায়িকা শুভশ্রী আদতে বর্ধমানের মেয়ে। কেরিয়ার শুরুর দিকে তাঁকে তাঁর মা ও দিদি দেবশ্রী (Debashree Ganguly) ছাড়া কেউ সমর্থন করেননি। 2006 সালে ‘ফেয়ারেভার আনন্দলোক নায়িকার খোঁজে’ জেতার পরেও টলিউডে হালে পানি পাচ্ছিলেন না শুভশ্রী। সেই সময় পরিচালক অশোক পতি (Ashok Pati) একটি ওড়িয়া ফিল্ম বানাচ্ছিলেন যার নাম ‘মাতে লা লাভ হেলারে’। এটি তেলেগু অ্যাকশন কমেডি ‘স্টুডেন্ট নং ওয়ান’-এর ওড়িয়া রিমেক। তিনি এই ফিল্মে শুভশ্রীকে নায়িকা হিসাবে মনোনীত করেন। 2008 সালে ওড়িয়া ফিল্ম ‘মাতে লা লাভ হেলারে’-র মাধ্যমে অভিনয়ে ডেবিউ করেন শুভশ্রী।

কিন্তু তাঁর গার্ল নেক্সট ডোর লুকের ফলে প্রভাত রায় (Prabhat Ray) পরিচালিত ফিল্ম ‘পিতৃভূমি’—তে তিনি জিৎ (Jeet)-এর বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এই ফিল্মের নায়িকা ছিলেন স্বস্তিকা মুখার্জী (Swastika Mukherjee)। জিৎ ও স্বস্তিকার জুটি হিট হলেও শুভশ্রীর অভিনয় সকলের নজর কেড়েছিল। পরবর্তীকালে ‘বস’, ‘গেম’, ‘অভিমান’ সহ বেশ কয়েকটি সুপারহিট ফিল্মে জিৎ-এর নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন শুভশ্রী।

2008 সালে সোহম চক্রবর্তী (Soham Chakraborty)-র বিপরীতে নায়িকা হিসাবে ‘বাজিমাত’ ফিল্মে অভিনয় করেন শুভশ্রী। নায়িকা হিসাবে এটি ছিল টলিউডে তাঁর প্রথম ফিল্ম। ‘বাজিমাত’ বক্স অফিসে সফল হয়েছিল। শুভশ্রী পেয়েছিলেন বাংলা ফিল্মের শ্রেষ্ঠ নবাগতার পুরস্কার। এরপর তাঁকে আর পিছন ফিরে দেখতে হয়নি। ধীরে ধীরে নায়িকা হিসাবে টলিউডে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছেন শুভশ্রী।

আরও পড়ুন:   বাড়ি ফিরেই যুবানকে আদর করলেন মাসি, বোনপোর উদ্দেশ্য খোলা চিঠি শুভশ্রীর দিদির