উচ্চতা মাত্র ২ ফুট! জীবনের চলতি পথে হাজার প্রতিকূলতার সম্মুখীন হয়েও আজ গিনেস বুকে রেকর্ড করেছেন ভারতের জ্যোতি

87

বিশ্বে এমন অনেক মানুষ আছে যাদেরকে না দেখলে হয়তো আপনারা কথাগুলির বিশ্বাস করবেন না। তেমনি একজন ব্যক্তি হলেন জ্যোতি কিষাণজি। তার বয়স ২৭ বছর কিন্তু বয়সের তুলনায় উচ্চতা মাত্র দুই ফুট। এই তরুণী বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম ব্যাক্তি। তিনি তার উচ্চতার জন্য গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নিজের নাম স্থাপন করেছেন।

জ্যোতির জন্ম হয়েছিল মহারাষ্ট্রে কিন্তু তার এই উচ্চতা শুধু তাকে গিনেস বুকে নাম করে দেয়নি তাকে জীবনের অনেক কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে আসতে হয়েছিল। এই হাইট এর জন্য নানা লোকে তাকে নানা কথা শুনিয়েছে। নানারকম অপমানজনক মন্তব্যও করেছে। মাত্র ২৭ বছর বয়সেই তাকে জীবনের লড়াই করে বাঁচতে হয়েছে। তার এই শারীরিক ত্রুটিটির জন্য তিনি আজ গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম ওঠার ভাগ্য প্রাপ্তি করেছেন। এখন শুধু ভারত নয় গোটা বিশ্ব তাকে চেনে।

জ্যোতির সাইজের কারণে জ্যোতিকে আলাদাভাবে জামা-কাপড় বানিয়ে দিতে হয়। জামা কাপড়ের সাথে সাথে তাকে আলাদা করে বাসনপত্র বানাতে হয়। জ্যোতি একটি রোগে আক্রান্ত যার নাম ডোয়ার্ফিজম। জ্যোতি যখন পাঁচ বছরের ছিলেন তখনই তার বাবা-মা এই রোগটির সম্বন্ধে বুঝতে পারেন। এখন জ্যোতির উচ্চতা দু ফুট এবং জন্মের পর থেকে তার ওজন মাত্র ৪ কেজি বেড়েছে।

জ্যোতি পাঞ্জাবি গায়ক মিকা সিং এর গানের ভিডিওতে কাজও করেছেন। এরপর থেকে তার খ্যাতি আরও বেড়ে চলেছে। এই গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম তার জীবনকে এক সুখের পথে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছে। আমাদের সমাজে যেখানে মানুষকে প্রতিমুহূর্তে অপমানিত করা হয় সেখানে জ্যোতির এই উন্নতি বেশ চমৎকার ব্যাপার। জ্যোতির জীবন নিয়ে একটি তথ্যচিত্র তৈরি করা হয়েছিল যেটি এখন “টু ফুট টল টিন” নামে পরিচিত।

আরও পড়ুন:   আস্ত গাড়িকে মুখে করে টেনে নিয়ে তছনছ করে দিল একটি বাঘ, মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও