ব্যাঙ্ক থেকে উধাও লক্ষাধিক টাকা! চোর ধরতে লালবাজারের দ্বারস্থ মা তারা

35

নবনীতা দাস এই মুহূর্তে ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’ ধারাবাহিকে মা তারার ভূমিকায় অভিনয় করছেন। নবনীতার স্বামী জিতু কমল তিনিও ছোট পর্দার অভিনেতা। দুজনেই বেশ পরিচিত এবং জনপ্রিয় জুটি। বাংলা টলি জগতে দুজনের অস্তিত্ব বেশ চটকদার। এরা ছোটপর্দায় যেমন জনপ্রিয়, তেমনই জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। আচমকা এই জুটির জীবনে নেমে আসে দুশ্চিন্তার ছায়া। ঠিক কী হয়েছে Jeetu-Nabanita র সঙ্গে?

আরও পড়ুন:   "আমাদের হানিমুন পর্ব শেষ হয়ে গেছে", বোমা ফাটালেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি

ব্যাঙ্ক থেকে টাকা চুরির ঘটনা নতুন নয়। মিথ্যে ফোনের প্রলোভনে পা দিয়ে অনেকেই টাকা খুইয়েছেন। কারোর কারোর কাছে এমন ধরনের fake call আসে, যেগুলি OTP চুরি করে ব্যাঙ্ক থেকে নিমেষের মধ্যে টাকা উধাও করে নেয়। হ্যাকাররা এতটাই শক্তিশালী হয়ে উঠেছে যে এরা একের পর এক নতুন নতুন পন্থা বের করে মানুষের ব্যাঙ্কে থাবা বসাচ্ছে।

আরও পড়ুন:   স্বামীকে খুশি করতে রোজ রাতে এই কাজটি করেন রানী মুখার্জি, নিজেই জানালেন সে'কথা

এবারে মা তারার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে থাবা বসালো কিছু হ্যাকার। কারা টাকা চুরি করেছে জানা যায়নি, তবে নবনীতা দাসের ক্রেডিট কার্ড থেকে উধাও হাজার হাজার টাকা। সেই টাকার অঙ্ক দাড়িয়েছে ২,৭২,০০০।

এদিন, অভিনেতা জিতু কমল সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে লেখেন, “২,৭২,০০০ (আনুমানিক) টাকা চুরি গেল বিওবি ক্রেডিট কার্ড থেকে গতকাল রাতে… দায়িত্ব ব্যাঙ্ক নেবে না.. বিলটা আমাকেই দিতে হবে.. কী মিষ্টি না ব্যাপারটা?” ইতিমধ্যে, লালবাজারের এই জুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন এবং কার্ড ব্লক করে দিয়েছেন। পাশাপাশি ব্যাঙ্কের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ব্যাঙ্ক অবশ্য সাফ জানিয়ে দেয় এই টাকা তাদেরকেই জমা করতে হবে, কারণ এটি ক্রেডিট কার্ড।