সাতপাকে বাঁধা পড়লেন শ্রীময়ী-রোহিত সেন, মালাবদল থেকে সিঁদুরদান রইল সমস্ত ছবি

13

অবশেষে হলো বহুকাঙ্খিত মিলন। চার হাত এক হয়ে গেল শ্রীময়ী রোহিত সেন এর। কলেজ জীবন থেকে দীর্ঘ বছর ধরে শ্রীময়ীর প্রতি টান ছিল রোহিতের তবে সেই সময়ে শ্রীময়ী অনিন্দ্য প্রতি আকৃষ্ট থাকায় তখন পাত্তা দেয়নি। তবে শ্রীময়ীর স্বামী অনিন্দ্য মাঝে হঠাৎই জুন আন্টিকে (June Anty) বিয়ে করে বসেন। তারপর থেকেই বেড়ে যায় দুজনের মধ্যকার দূরত্ব। অবশেষে শ্রীময়ী (Sreimayee) এবং কলেজের বিশেষ বন্ধু রোহিত সেন (Rohit Sen) ঠিক করেন নিজেদের চার হাত এক করার কথা।

আরও পড়ুন:   মনের মানুষের সঙ্গে চুপিসারে গাঁটছড়া বাঁধলেন ‘ওগো নিরুপমা’ খ্যাত অভিনেত্রী

টোটা রায়চৌধুরী (Tota Roy Choudhary) এবং ইন্দ্রানী হালদার (Indrani Haldar) দুজনেই এই বিয়ের জন্য উন্মুখ ছিলেন। ইন্দ্রানী আগেই জানিয়েছিলেন, তিনি শ্রীময়ীর বিয়ের জন্য নিজের সোনার গয়না এবং শাড়ি পরবেন। এমনকি নতুন শাড়ি কিনে ছিলেন এই বিশেষ দিনের জন্য। গয়নার প্রসঙ্গে টোটা রায়চৌধুরী বলেছিলেন,‘‘ইন্দ্রাণীর বাড়ি ভর্তি সোনার গয়না। এই বিয়েতে তো নিজের গয়নাই পরবে।’’

এই বিশেষ দিনে শ্রীময়ী সাজে ছিল সবুজ রংয়ের পাড়ের শাড়ি, মাথায় জুঁই ফুলের মালা, কানে ঝুমকো, হাত ভর্তি সোনার বালা, রতনচূড়, গলায় কয়েকটি ভারি সোনার হার, নাকে নথ, কপালে টিকলি এবং টিপ পরে শক্ত করে ধরলেন রোহিতের হাত। ওদিকে বরের সাজে ছিল মেরুন রংয়ের ধুতি আর সাদা পাঞ্জাবি।

আরও পড়ুন:   সুশান্তের ফার্মহাউস থেকে উদ্ধার সুশান্তের হাতে লেখা নোটস, সামনে এলো অবাক করা তথ্য

জীবনে প্রথম প্রেমের মালা বদল এর রাত এলো রোহিত সেন এর জীবনে। হাসি মুখে পড়ে নিলেন সেই মালা। শ্রীময়ী একেবারে আহ্লাদে আটখানা। দুজনের মুখেই বিয়ের রং লেগে রয়েছে, শক্ত করে নিজের কাছে টেনে নিলেন শ্রীময়ী কে। জীবনের শেষ প্রান্তে দাঁড়িয়ে নিজের প্রেমিকাকে কাছে পেয়ে বাক্য হারিয়েছেন রোহিত। ক্যানসারকে তুচ্ছ মনে হচ্ছে আজ তার, জীবনে হাসির মুহূর্ত যেন আর শেষ হচ্ছে না। স্বামীর কাছ থেকে অসম্মান, শ্বশুরবাড়ি থেকে দিনের-পর-দিন লাঞ্ছনা সবকিছুর উপরে গিয়ে আজ শ্রীময়ী মুক্ত। বাঁধা পড়েছেন নিজের মনের মানুষের কাছে। আলো, ফুলের গন্ধ, আত্মীয়-স্বজনের হই হই পুরো পরিবেশকে এক অন্য রকম রূপ দিয়েছে।

আরও পড়ুন:   সুশান্ত মৃত্যুকাণ্ডের নয়া মোড়, এবার জড়িত হল আরেক জনপ্রিয় অভিনেতার নাম