বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ, বৃষ্টি নিয়ে বড়সড় পূর্বাভাস দিলো আবহাওয়া দফতর

গতকাল আকাশে মেঘ সরে গিয়ে উজ্জ্বল আকাশ দেখা গিয়েছিল, তার সঙ্গে হুড়মুড়িয়ে ঢুকে পড়ে শীত। গত ৪৮ ঘণ্টায় কলকাতা তাপমাত্রা কমে গিয়েছিল ৭ ডিগ্রি।একদিনে ৪ ডিগ্রি কমে গিয়ে কলকাতা তাপমাত্রা হয়ে দাঁড়িয়ে ছিল ১৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি। শীতের এই আমিস আরো দুদিন এ রকমই থাকবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া দপ্তর। কোথাও কোথাও এর থেকে বেশি শীত পড়বে বলে জানিয়েছেন তারা। কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিক এর থেকে তিন ডিগ্রি নিচে। গতকাল কলকাতা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যেটা স্বাভাবিকের থেকে১ ডিগ্রি কম। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ ছিল ৯৪ %।

২৪ ঘন্টায় কোথাও কোন বৃষ্টিপাত হয়নি। শনিবার কলকাতা সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে এই তাপমাত্রা বেশি দিন দীর্ঘস্থায়ী থাকবে না। এমনটাই জানিয়েছেন আবহাওয়া দপ্তর। শুক্রবার থেকে আবার ধীরে ধীরে তাপমাত্রা বাড়বে বলে জানিয়েছেন তারা।

উত্তর পশ্চিম ভারতে আজ থেকেই পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাব পড়বে। তুষারপাতে সম্ভাবনা রয়েছে জম্মু-কাশ্মীর, লাদাখ এবং হিমাচল প্রদেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে। এর মধ্যেই আরব সাগর এবং বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় অবস্থান করছে। আরব সাগরের ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়বে সোমালিয়াতে।

দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরের ঘূর্ণিঝড় ক্রমশ তামিলনাড়ুর উপকূলের দিকে এগোচ্ছে। বুধবার বিকেলে স্থলভাগের প্রবেশ করার সম্ভাবনা।এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে তামিলনাড়ু উপকূলে বুধবার ঝোড়ো হাওয়ার গতিবেগ এবং তার সাথে বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এখন থেকেই মৎস্যজীবীদের সমুদ্র যেতে নিষেধ করে দেওয়া হয়েছে। প্রবল ঝড় এবং বৃষ্টি সম্ভাবনা তামিলনাড়ু এবং তার সংলগ্ণ অন্ধ্র প্রদেশ উপকূলে।