বাড়িতে অতিরিক্ত জিনিস কিনে মজুত করতে মানা করলেন প্রধানমন্ত্রী

করোনা যত ছড়াচ্ছে, ততই মানুষ শঙ্কিত হয়ে পড়ছেন। অজানা আশঙ্কায় ভুগছেন। সেইসঙ্গে সোশ্যাল সাইটে বেশ কিছু মানুষ প্রয়োজনীয় খাবার, ওষুধ ও অন্যান্য জিনিস মজুত করতে অনুপ্রাণিত করছেন। এতে দেশজুড়ে অনেকে প্যানিক পারচেজ বা শঙ্কায় কেনাকাটা শুরু করেছেন। আগে ভাগেই ঘরে অনেককিছু মজুত করা শুরু করেছেন। বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে এমন করতে মানা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রধানমন্ত্রী জানান, দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের যাতে অভাব না হয় সেদিকে কঠোর নজর রাখা হচ্ছে। তাই যেমন বাড়ির জন্য আগে কেনাকাটা করতেন তেমনই যেন মানুষ করেন। অতিরিক্ত কিনে বাড়িতে মজুত করার কোনও প্রয়োজন নেই।

[আরও পড়ুনঃকরোনা মোকাবিলায় ২২ মার্চ ‘জনতা কার্ফু’ পালনের আর্জি প্রধানমন্ত্রী মোদীর]

ভিন্ন সোশ্যাল সাইটে কিন্তু বাড়িতে মজুত করতে বলায় অনেক দোকান থেকেই জিনিসপত্র শূন্য হয়ে যাচ্ছে। মানুষ প্রচুর কিনে বাড়িতে মজুত করছেন।

এটা ঠিক যে মাস্ক বা হ্যান্ডওয়াশের মত জিনিসপত্র নিয়ে বাজারে একটা হাহাকার শুরু হয়েছে। কিন্তু যেভাবে মানুষ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসও শেষ কদিনে মজুত করা শুরু করেছেন তা অন্যদেরও অনুপ্রাণিত করছে। ফলে তাঁরাও একই পথে হাঁটছেন। প্রধানমন্ত্রীর এদিনের আশ্বাস সেই প্রবণতা থেকে কি মানুষকে সরিয়ে আনতে পারবে। সেটা বোঝা যাবে কয়েক দিনেই। – সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা