ঘরে বসেই পাবেন ৩৬ হাজার টাকা পেনশন! গরীব মানুষদের জন্য নতুন স্কিম মোদীর

modi_rupee

ক্ষমতায় আসার পর থেকে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার দরিদ্র শ্রমজীবী ​​মানুষের সুবিধার্থে একের পর এক পরিকল্পনা নিয়ে এসেছে। এবার মোদী সরকার এমন এক পেনশন স্কিম নিয়ে এসেছে যেখানে আপনি ঘরে বসে 36,000 টাকা পেতে পারেন।

করোনার পরিস্থিতিতে মোদী সরকার দেশের ২০ লাখেরও বেশি কৃষকের জন্য এই স্কিম নিয়ে এসেছে। কেন্দ্রীয় সরকারের মতে, মোদি সরকার দেশের মোট ২০ লাখ ৪১ হাজার কৃষককে বার্ষিক 36,০০০ টাকা পেনশন দেবে। জানা গেছে যে ইতিমধ্যে অনেক লোক এই প্রকল্পে যোগ দিয়েছে।

জানা গেছে, নিবন্ধিত মহিলাদের সংখ্যা ৬ লাখ ৩৬ হাজারের বেশী। শুধুমাত্র হরিয়ানায় ৪ লক্ষাধিক কৃষক ইতোমধ্যে নিবন্ধন করেছেন। ঝাড়খণ্ডে এই সংখ্যা 3 লক্ষেরও বেশি। নিবন্ধিত কৃষকদের বেশিরভাগই 25 থেকে 35 বছরের মধ্যে বয়স।

বিশদে জেনে নিন স্কিমটিঃ
• 18 থেকে 40 বছর বয়সের মধ্যে কৃষক যাদের 5 একর অর্থাৎ 2 হেক্টর জমি আছে তারা আবেদন করতে পারবে
• ২০ বছর বয়সীদের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৫৫, ৪০ বছর বয়সী দের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ২০০ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।
• কৃষকের আধার কার্ড, জমির কাগজের ফটোকপি, দু’কপি ফটো এবং ব্যাংকের পাসবুক লাগবে রেজিষ্ট্রেশন করতে।
• রেজিষ্ট্রেশন হয়ে গেলে দেওয়া হবে পেনশন ইউনিক নাম্বার এবং পেনশন কার্ড
• ৬০ বছরের পর মাসিক ৩ হাজার টাকা পাওয়া যাবে। কৃষকের মৃত্যু হলে তার স্ত্রী পাবেন ৫০%। স্কিম ছেড়ে বেরিয়ে আসতে চাইলে মিলবে সুদ সহ গোটা টাকাই।