শাহরুখ খান দেশের গর্ব! শাহরুখকে নিয়ে পোষ্ট করতেই তীব্র কটাক্ষের শিকার অভিনেত্রী মনামী ঘোষ

25

প্রায় তিন দশকের বেশি সময় কাল থেকে বলিউডে রাজ করছেন শাহরুখ খান! দেশ-বিদেশে কোটি কোটি ভক্তগণ ছড়িয়ে রয়েছে তার। বহুকাল ধরে অর্জিত তার এই সুখ্যাতি বর্তমানে প্রায় ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছে তার বড় ছেলে আরিয়ান খান। গত 3রা অক্টোবর গোয়াগামী এক ক্রুজের মাদক পার্টি থেকে গ্রেপ্তার হয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে আরিয়ান। তবে ছেলের কুকর্মের ফল ভোগ করতে হচ্ছে বাবাকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় শাহরুখকে নিয়ে চলছে তুমুল সমালোচনা আর এর মাঝেই শাহরুখের সাপোর্টে পোস্ট দিয়ে নেটিজেনদের ট্রলের শিকার হলেন সুন্দরী অভিনেত্রী মনামী ঘোষ।

আরও পড়ুন:   টিআরপি লড়াইয়ে বলি রোহন-সৃজলার প্রেম! মুখোমুখি নামতে চলেছেন যুদ্ধে

বাংলার ব্যান্ড অ্যাম্বাসেডর শাহরুখ। তাই কলকাতায় অনুষ্ঠিত বাংলা একাধিক চলচ্চিত্র উৎসবে টলি অভিনেত্রীদের সাথে শাহরুখ এ যোগ রাজু বহুকাল ধরেই। টলিউডের এই সুন্দরী অভিনেত্রী এদিন তার ফেসবুক ওয়াল থেকে শাহরুখের সাপোর্ট একটি পোষ্ট দিয়ে লেখেন, “শাহরুখ তুমি ভারতের গর্ব আর থাকবেও। আমরা তোমাকে খুব ভালোবাসি আর বেসেই যাব।” তবে এরপরই সেই পোস্ট নিয়ে শুরু হয় গন্ডগোল। সাপোর্টের জায়গায় তীব্র ট্রলিং এর শিকার হন তিনি।

আরও পড়ুন:   আরিয়ানের সাথে মাদক চক্রে যুক্ত অন্যন্যা ! অভিনেত্রীর বাড়িতে তল্লাশি NCB-এর

তার এই ফেসবুক পোস্টে নেটিজেনরা নানান নেতিবাচক মন্তব্য করেন। কেউ লেখেন, “আচ্ছা বুঝতে পারছি আপনি বলিউডে পা রাখতে চাইছেন তাই অনেকটা তেল এর প্রয়োজন।” আবার কেও লিখেছেন, “ঠিক কি কারনে শাহরুখ দেশের গর্ব। অনেক টাকা রোজগার করেছেন বলে?” ওপর এক নেটিজেন এর বক্তব্য ছিল, “ভগৎ সিং, আবদুল কালাম, নেতাজি এরা হলেন দেশের গর্ব; শাহরুখ নন”। তবে নিজের দেওয়া এই পোস্টে নেটিজেনদের এমন আক্রমনাত্মক মন্তব্যগুলির কোন ধরনের উত্তর দিতে দেখা যায়নি মোনামিকে।

আরও পড়ুন:   ঐশ্বর্য রাইয়ের সঙ্গে খারাপ কাজ করেছিলেন শাহরুখ খান! ফাঁস হল গোপন তথ্য

তবে শাহরুখের এই দুঃসময়ে সুন্দরী অভিনেত্রী মোনামিই শুধু ভার্চুয়ালি পাশে দাঁড়াননি, শাহরুখের মুম্বাইয়ের মান্নাতের বাইরে শয়ে শয়ে তার ভক্তদের প্ল্যাকার্ড হাতে সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গিয়েছে। যাতে লেখা, “শাহরুখ তোমার পাশে আছি।” বিগত কুড়ি দিন ধরে ছেলেকে আর্থার রোডের জেল থেকে বের করার আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন শাহরুখ। শাহরুখ ভক্তদের দাবি শুধুমাত্র ছেলের কুকর্মের জন্য বাবার এতদিনের কমানো সুখ্যাতি কোনদিনই প্রশ্নের সম্মুখিন হতে পারে না!