পৃথিবীর দিকে ছুটে আসছে নিওওয়াইস

Newwise is running towards the earth
পৃথিবীর দিকে ছুটে আসছে নিওওয়াইস

নিজস্ব প্রতিবেদন: ১৪ জুলাই থেকে মহাকাশে দেখা যাবে এক অভূতপূর্ব দৃশ্য। সেই দৃশ্য দেখা যাবে খালি চোখেই। ধূমকেতুর পোশাকি নামকরণ করা হয়েছে নিওওয়াইস। এ সম্পর্কে বিজ্ঞানীরা বলছেন, দুরন্ত গতিতে ধূমকেতুটি পৃথিবীর দিকে এগিয়ে আসছে।

সাধারণত এ ধরনের দৃশ্য দেখার জন্য দূরবীক্ষণ যন্ত্রের প্রয়োজন হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে একেবারেই খালি চোখে দেখা যাবে সেই দৃশ্য। কাল অর্থাৎ মঙ্গলবার থেকে কলকাতাতেও দেখা যাবে এই ধূমকেতু। কিন্তু কখন?
রোজ সূর্যাস্তের পর উত্তর-পশ্চিম আকাশে জ্বলজ্বল করে উঠবে নিওওয়াইস।

টানা ২০ দিন সূর্যাস্তের পর ২০ মিনিট করে দেখা যাবে সেটি। প্রত্যেকদিন একই জায়গায় দেখা যাবে। বিড়লা তারামণ্ডলের অধিকর্তা দেবীপ্রসাদ দুয়ারি এক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘গত ২৭ মার্চ ধূমকেতুটি আবিষ্কৃত হয়েছিল। সূর্যকে একবার চক্কর মেরে পৃথিবীর কাছাকাছি চলে আসছে। এটি খুব উজ্জ্বল। খালি চোখেই দৃশ্যমান হবে।

১৪ জুলাই থেকে দেখা যাবে উত্তর-পশ্চিম আকাশে। জানা যাচ্ছে, নিওওয়াইস পৃথিবীর সবচেয়ে কাছাকাছি আসবে আগামী ২২ জুলাই। সেদিন ভূপৃষ্ঠ থেকে এর দূরত্ব হবে ১০ কোটি ৩৫ লক্ষ কিলোমিটার। সূর্যাস্তের পর উত্তর-পশ্চিম দিগন্তের ১০-১৫ ডিগ্রি ওপরে দৃশ্যমান হবে।

এর আগে ১৯৯৭ সালে হেলবোপ ধূমকেতু পশ্চিমবঙ্গ ও কলকাতার আশপাশ থেকে দেখা গিয়েছিল। এরপরেও কিছু ধূমকেতু এসেছে। তবে দূরবীন ছাড়া সেগুলি দেখা সম্ভব হয়নি। নিওওয়াইসকে কিন্তু খালি চোখেই দেখা যাবে।

এগুলির আয়তন ৫ থেকে ১০-১২ কিলোমিটার পর্যন্ত হয়। এই বরফের চাঙড়গুলি যখন সূর্যের আকর্ষণে, সূর্যের চারিদিকে উপবৃত্তাকার পথে ঘুরে যায়, সূর্যের তাপে বরফ গলে গিয়ে বাস্পীভূত হয়ে কোটি কোটি কিলোমিটার লম্বা ঝাঁটার মতো দেখতে লেজ সৃষ্টি করে।