টানা লড়াইয়ের পর করোনাকে জয় করল ৩৫ দিনের ছোট্ট শিশু, জানুন সেই লড়াইয়ের কাহিনী

টানা লড়াইয়ের পর করোনাকে জয় করল ৩৫ দিনের ছোট্ট শিশু, জানুন সেই লড়াইয়ের কাহিনী

করোনার গ্রাস থেকে রক্ষা পেলনা এক ছোট্ট শিশু। ৬ ই আগস্ট জন্ম হয় তার। লড়াইটা চলে ৯ ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। গিরিশ পার্ক এর এক মহিলা ৫ ই আগস্ট রাত্রিবেলা প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে ভর্তি হন হাসপাতালে। টানা ৩১ সপ্তাহ অতিক্রম করার পরে তিনি জন্ম দেন যমজ সন্তানের। একটি শিশুকন্যা এবং একটি শিশুপুত্র। তাদের দুজনেরই ওজন খুব কম ছিল। একজনের ওজন ছিল ৫০০ গ্রাম, আরেকজনের ১ কিলো ৩০০ গ্রাম। শেষ পর্যন্ত কন্যা সন্তানকে বাঁচানো যায়নি।

শিশু পুত্র এর পরীক্ষা করার পরে কোভিড পজিটিভ ধরা পড়ে। ১৪ দিন হোম আইসোলেশনে থাকার পরে শিশুটির আবারও কোভিড পরীক্ষা করলে তা নেগেটিভ আসে। বারংবার টেস্ট করার পরে যখন নেগেটিভ আসতে শুরু করে তখন ৩০ দিন পরে বুধবার সেই শিশুকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় তার পরিবারের কাছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শিশুটির শারীরিক অবস্থার অবনতির সাথে সাথেই চিকিৎসা শুরু করে দেওয়া হয় তাতে খুব ভালো সাড়া দিয়েছিল এই ছোট্ট শিশু যোদ্ধা। এই মুহূর্তে একেবারে সুস্থ হয়ে গেছে সে তবে তাকে নিয়মিত চেকআপ এর মধ্যে রাখতে হবে।

আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের সঙ্গী করেই চলতে হবে করোনা ভাইরাসকে। কবে এর ভ্যাকসিন আবিষ্কার হবে তার ভরসায় থাকলে অর্থনৈতিক কাঠামো একেবারে ভেঙেচুরে শেষ হয়ে যাবে। তাই প্রত্যেকটি লড়াই করতে হবে এর বিরুদ্ধে। তার জন্য প্রয়োজন শারীরিকভাবে এবং মানসিকভাবে দৃঢ় হওয়া। এই ছোট্ট শিশু ও লড়াই করে গেছে করোনার বিরুদ্ধে।