করোনায় আরও এক লক্ষ আমেরিকান মারা যেতে পারে! আশঙ্কা করছেন ট্রাম্প

আমেরিকায় করোনাভাইরাস এর জন্য যত জন মারা যাবে বলে ট্রাম্প প্রশাসন মনে করেছিলেন তার থেকে ইতিমধ্যেই প্রচুর সংখ্যক মানুষ মারা গিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে আরো ভয়ের কথা শোনালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। রবিবার তিনি জানান, আমেরিকায় করোনা অতিমহামারীতে মারা যেতে পারেন ১ লক্ষ মানুষ। তবে তাঁর আশা, চলতি বছরের শেষেই তৈরি হয়ে যাবে কোভিড ১৯ এর ভ্যাকসিন।

এদিন সংবাদমাধ্যমে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি দাবি করেন, আমেরিকার অর্থনীতি শীঘ্রই ঘুরে দাঁড়াবে। অতিমহামারীর জন্য তিনি চিনকে দোষ দেন। আমেরিকায় করোনা মহামারীতে আক্রান্ত হয়েছেন ১১ লক্ষ। মারা গিয়েছেন প্রায় ৬৭ হাজার মানুষ। দেশের বেশিরভাগ শিক্ষায়তন ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এখনও বন্ধ হয়ে আছে।

ট্রাম্প আরও জানিয়েছেন, ‘আমরা ৮০ হাজার থেকে ১ লক্ষ মানুষকে হারাতে চলেছি। ব্যাপারটা খুব সাংঘাতিক।’ তিনি এর আগে গত সপ্তাহের শুরুতে বলেছিলেন বড়জোর ৬০ থেকে ৭০ হাজার মানুষ মারা যাবেন। আমেরিকার প্রায় অর্ধেক দেশে সংক্রমণের হার অনেকটা কমেছে। শাটডাউন শিথিল করা হয়েছে কিছু পরিমাণে। সাধারণ মানুষ ত্রাণের জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।

ট্রাম্পও বলেছেন, ‘আমরা ঘরের দরজা বন্ধ করে বসে থাকতে পারি না।’ করোনার ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়, চলতি বছরের শেষেই প্রতিষেধক তৈরি হয়ে যাবে। অবশ্য চিকিত্‍সকরা এখনই সেকথা বলছেন না। কিন্তু আমি মনে করি, খুব তাড়াতাড়িই ভ্যাকসিন তৈরি হয়ে যাবে।’