পাকিস্তানিরা গাইছে “বন্দেমাতারম”, লেখা আছে Boycott China

Boycott-China
পাকিস্তানিরা গাইছে "বন্দেমাতারম"

নিজস্ব প্রতিবেদন: লন্ডনে এক দুর্লভ ঘটনার স্বাক্ষী রইলেন সকলেই। ভারতের রাষ্ট্রীয় গান গাইছে এক পাকিস্তানি নাগরিকরা। চীনের দূতাবাসের বাইরে একটি বিক্ষোভ প্রদর্শনে কিছু পাকিস্তানি নাগরিক ভারতীয় নাগরিকদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চীনের বিরোধীতার সাথে সাথে ভারতের রাষ্ট্রীয় গান বন্দেমাতরম গাইলেন।

এই বিক্ষোভ প্রদর্শনের আয়োজন চীনের বিরুদ্ধে। উল্লেখ করা ছিল ‘boycottchina”। এই বিক্ষোভ প্রদর্শনে পাকিস্তানি মানবাধিকার কার্যকর্তা আরিফ আজকিয়াও অংশ নেন। উনি নিজের দেশের বর্তমান পরিস্থিতি আর প্রকৃত সত্য তুলে ধরায় আগাগোড়াই বিশ্বাসী। আর এর সাথেই উনি ভারতীয়দের সাথে একসুরে চীন মুর্দাবাদ স্লোগানও দেন।

আজকিয়া বলেন, ‘আজ জীবনে প্রথমবার বন্দেমাতরম গাইলাম।’ এছাড়া ওই বিক্ষোভে উপস্থিত এক পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বাসিন্দা বলেন, ‘আমি এই বিক্ষোভ প্রদর্শনে অংশ নেওয়া জন্য গ্লাসগো থেকে এসেছি। আমি পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বাসিন্দা। আমি পাকিস্তানের কবজায় থাকা একজন ভারতীয়। চীন সিপিইসি এর মাধ্যমে গিলগিট বাল্টিস্তানে তাণ্ডব করছে আর পাকিস্তানি সরকার তাদের সাথে এক হয়ে কাজ করছে।’

তিনি পাকিস্তান সরকার দ্বারা পাক অধিকৃত কাশ্মীরে মানুষের উপর করা অত্যাচার আর অন্যায় বিরুদ্ধে আগাগোড়াই মুখর হন। এছাড়াও কয়েকজন করাচি এবং ইরানের মানুষও ছিলেন। তাঁরাও এই বিক্ষোভ প্রদর্শনে অংশ নেন। সকলেই চীনের রাষ্ট্রপতি জিনপিং এর বিরুদ্ধে পোস্টার আর প্ল্যাকার্ড নিয়ে হাজির হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, একেই চিন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস মহামারীতে অতিষ্ট গোটা দেশ। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কথা বহু আগে থেকেই জানত চিন এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এই কথা সামনে আসতেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করেছিল মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এমনকি ভারতেও বন্ধ করা হয়েছে চিনের সমস্ত অ্যাপ এবং যাবতীয় জিনিস পত্র।