এবার কলেজ পাশেই মিলবে পাসপোর্ট

Passport

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ পাসপোর্ট তৈরীর জন্য আর নয় ঝক্কি। এবার গ্রাজুয়েশন শেষ করলেই মিলবে পাসপোর্ট। পাসপোর্ট বিদেশে পাড়ি দেওয়ার প্রাথমিক পদক্ষেপ। বিনা পাসপোর্টে বিদেশযাত্রা কোনোভাবেই সম্ভব নয়।
দেশের একটা বড়ো সংখ্যক পড়ুয়াই বিদেশে পড়াশোনা করার জন্য পাড়ি দেয়। তাই স্বপ্ন সত্যি করার ক্ষেত্রেও প্রথম পদক্ষেপ পাসপোর্ট। তবে ভারতেই পাসপোর্ট বানানোর ক্ষেত্রে অভিনব এক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

কী সেই অভিনব পদ্ধতি?  জানা যাচ্ছে, গ্রাজুয়েট হলেই মিলবে পাসপোর্ট। এবার হরিয়ানায় গ্র্যাজুয়েশন করেই মিলবে পাসপোর্ট।  অবশ্য এই সুবিধা সবার জন্য উপলব্ধ নয়। গ্র্যাজুয়েশন করার পর শুধুমাত্র মেয়েরাই এই সুবিধা পাবে।

শনিবার এমনটাই ঘোষণা করেন হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর। এদিন রাজ্যের মঙ্গল সিং অডিটোরিয়ামে ‘হর সর হেলমেট’ নামে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এক হেলমেট প্রস্তুতকারক সংস্থা।
সেই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই পাসপোর্ট সংক্রান্ত এই ঘোষণা করে সকলকে চমকে দেন খট্টর।

অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, গ্র্যাজুয়েট হলেই ছাত্রীদের হাতে তাদের পাসপোর্ট তুলে দেওয়া হবে। পাসপোর্ট তৈরির পুরো প্রক্রিয়াটাই কলেজ চত্বরের মধ্যে করা হবে বলেও জানান তিনি। এর জন্য ছাত্রীদের কোনো প্রশাসনিক দফতরে দৌড়তে হবে না।

শনিবারের অনুষ্ঠানে আসা স্কুল, কলেজ ও আইটিআইয়ের ৫ জন পড়ুয়ার হাতে হেলমেট ও লাইসেন্স তুলে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে ট্র্যাফিক আইন সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে সরকার থেকে নানা ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এই জন্য রাজ্যের সব কলেজ পড়ুয়াদের ট্র্যাফিক আইন সম্পর্কে সচেতন করার পাঠ চালু হয়েছে।

আগামী দিনে শুধুমাত্র কলেজগুলি থেকেই পড়ুয়ারা যাতে ড্রাইভিং লাইসেন্স তৈরি করাতে পারেন তার ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। ভারতবর্ষের লিঙ্গ বৈষম্যে পিছিয়ে থাকা রাজ্যগুলির মধ্যে অন্যতম হরিয়ানা। উত্তর ভারতের এই রাজ্যে পুরুষের তুলনায় মহিলার সংখ্যাও উল্লেখযোগ্য ভাবে কম। তাই এই অভিনব প্রথা। অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেন, গ্র্যাজুয়েট হলেই ছাত্রীদের হাতে তাদের পাসপোর্ট তুলে দেওয়া হবে। পাসপোর্ট তৈরির পুরো প্রক্রিয়াটাই কলেজ চত্বরের মধ্যে করা হবে বলেও জানান তিনি। এর জন্য ছাত্রীদের কোনো প্রশাসনিক দফতরে দৌড়তে হবে না।