বিনোদন

হানিমুনে গিয়ে বড়সড় অঘটন, স্বামীর অত্যাচারে হাসপাতালে ভর্তি পুনম পান্ডে

‘সাত জন্ম একসাথে কাটাতে চাই’ সোশ্যাল মিডিয়াতে এমনটাই জানিয়ে ছিলেন বলিউডের বিতর্কিত অভিনেত্রী পুনম পান্ডে। অথচ যা কেউ কল্পনাও করতে পারেনি এমন ঘটনা ঘটলো হানিমুনে গিয়ে। অভিনেত্রী পুনাম পান্ডে তার স্বামীর বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ আনলেন।

১০ই সেপ্টেম্বর সবার সম্মুখে জানান তাদের বিবাহ বন্ধন এর কথা। ১লা সেপ্টেম্বর তারা তাদের নতুন জীবনে পা রাখেন। কিন্তু নিমিষের মধ্যে ভেঙে যায় তাদের এই জন্ম-জন্মান্তরের সম্পর্ক। তিনি জানান গোয়ায় হানিমুনে গিয়ে স্বামীর হাতে নির্যাতিত হন। ইতিমধ্যেই পুনাম পান্ডে তার স্বামী শ্যাম বম্বের উপর শ্লীলতাহানীর কেস করেছে। শ্যাম বম্বে কে মঙ্গলবার সকালে গ্রেপ্তার করা হয়।

তারা বিবাহে আবদ্ধ হয় প্রায় তিন বছর প্রেমের পর। তাদের প্রেমের সম্পর্ক বরাবরই হিংসাপূর্ণ ছিলেন এমনটাই জানায় পুনাম পান্ডে। বলিউডের অভিনেত্রী ঘুণাক্ষরেও টের পাইনি হানিমুনে গিয়ে তার সাথে এমন ঘটনা ঘটবে। সামান্য বিষয়ে মেজাজ হারিয়ে সমস্যার সৃষ্টি হতো পুনমের প্রতি অতিরিক্ত পজিটিভ থাকার ফলে।

এরকমই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় হানিমুনে। সামান্য একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে শুধু কথা কাটাকাটি নয় হাতাহাতি পর্যন্ত জল গড়ায় এমনটাই জানাই বলিউডের অভিনেত্রী। অভিনেত্রী জানাই তার স্বামী তাকে ঘুষি, কিল, গলা টিপে ধরে শ্বাস রোধের চেষ্টা ও খাটের কোনায় নিয়ে গিয়ে মাথা ঠোকার মতো জঘন্য শারীরিক অত্যাচার করতে থাকে। অভিনেত্রী নিজেকে বাঁচানোর জন্য হোটেলের রুম থেকে পালিয়ে হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানায় ঘটনাটি। এরপর সেই বিয়ে ভাঙার এবং শ্যাম কে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। পুনমের কথামতো পুলিশ স্বামীকে গ্রেফতার করে এবং এও জানা যায় বুধবার সে জামিনে ছাড়া পায়। অভিনেত্রী এক বন্ধুর কাছ থেকে জানা যায় যে অভিনেত্রী বুধবার পর্যন্ত হসপিটালে ভর্তি ছিলেন।

Related Articles

Back to top button