Homeবিনোদনঠোঁটে ঠোঁট পুলিশকর্তার ! নিজের ভাইরাল হওয়া ভিডিও নিয়ে মুখ খুললেন পরীমণি

ঠোঁটে ঠোঁট পুলিশকর্তার ! নিজের ভাইরাল হওয়া ভিডিও নিয়ে মুখ খুললেন পরীমণি

মাদক কান্ডে গত মাসে গ্রেফতার হয়েছিলেন বাংলাদেশের অভিনেত্রী পরীমণি (Porimoni)। 26 দিন জেলে কাটানোর পর সম্প্রতি জামিনে মুক্ত হয়েছেন তিনি। কিন্তু পরীমণি মানেই বিতর্ক। জেলে থাকাকালীন তাঁর কয়েকটি ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। পরীমণি এই বিষয় নিয়ে এবার মুখ খুলেছেন।

ক্ষুব্ধ পরীমণি বলেছেন, তাঁর ফোনে থাকা ভিডিওগুলি প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। পরীমণির গ্রেফতারের পর বাংলাদেশের পুলিশকর্তা মোহাম্মদ গোলাম সাকলায়েন (Mohammed Golam Saklayen)-এর সঙ্গে তাঁর ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়। ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয় গোলাম সাকলায়েনের জন্মদিনের ভিডিও। ভিডিওতে দেখা যায়, তিনি একটি নীল রঙের কেক কাটছেন। তাঁর পাশে বসে রয়েছেন পরীমণি। দুজনে হাত ধরে একসঙ্গে কেক কাটার পর সাকলায়েনকে কেক খাইয়ে দিলেন পরীমণি। তারপরেই তার ঠোঁটে চুম্বন করলেন অভিনেত্রী। এরপর একটি বড় কেকের টুকরো নিজের মুখে নিয়ে খাইয়ে দিতে দেখা গেল সাকলায়েনকে।

এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পর পরীমণি জানিয়েছেন, তাঁর ফোন, গাড়ি সমস্ত কিছুই তদন্তকারী অফিসাররা বাজেয়াপ্ত করেছেন। ওই ফোনে তাঁর ব্যক্তিগত ভিডিও ছিল যেগুলি লিক করা হয়েছে। পরীমণির দাবি, তিনি যে বাড়িতে ছিলেন, তার সিসিটিভি ফুটেজও খতিয়ে দেখেছে পুলিশ। তিনি বলেছেন, পুলিশ তাঁকে হেনস্থা করেছে। রীতিমতো নাটক করে পুলিশ তাঁকে থানায় নিয়ে গিয়েছিল। সেখানে তাঁর সাথে কিরকম ব্যবহার করা হয়েছে , সবকিছুই বিস্তারিত জানাবেন তিনি। নিজেকে নির্দোষ দাবি করে পরীমণি বলেন, তিনি শুরু থেকেই স্ট্রং ছিলেন। দোষী হলে তিনি নিজেই ভেঙে পড়তেন। পরীমণি মিডিয়ার কাছে একটু সময় চেয়ে নিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, সমস্ত ঘটনা তিনি বলবেন।

একমাস ধরে মানসি অশান্তির মধ্যে ছিলেন পরীমণি। তিনি জানিয়েছেন, প্রায় পাগল হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। রাতের পর রাত ঘুম হত না। পরীমণির অভিযোগ, অনেকেই নিজের সাংবাদিক বলে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন ছবি তুলেছে ও ইউটিউবে রসালো হেডিং দিয়ে কন্টেন্ট বানিয়েছে।

গত 4 ঠা অগস্ট মাদক কান্ডে গ্রেফতার হওয়ার পর 26 দিন জেলে ছিলেন পরীমণি। কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে ছিলেন তিনি। সম্প্রতি ঢাকা মহানগর আদালতের দায়রা বিচারক কে.এম.ইমরুল কায়েশ (K.M. Imrul Kayesh) তাঁর জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন।

MOST POPULAR ARTICLES