উনি একজন ইনস্টিটিউশন, বিশাল একটা বট গাছের মতো

November 15, 2020 | 8:57 PM
blog image

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় এ যুগের এক অন্যতম অভিনেতা তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় শুধু অভিনেতাই নন তিনি একজন নাট্যকার, বাচিকশিল্পী এবং কবি। আজ টলিপাড়ার সমস্ত তারকারাই শোক পালন করছেন। কারণ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় আজ আর আমাদের মধ্যে নেই।

সকল তারকাদের মধ্যেও প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ও তাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে বললেন যে তার নাম সোনার অক্ষরে লেখা থাকবে ইতিহাসের পাতায়। প্রসেনজিৎতের বাবার সহ অভিনেতা ছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তারপরে প্রসেনজিতেও সহ-অভিনেতা হয়ে উঠলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তবে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় কাকু বলে সন্মধন করে থাকে।

আরও পড়ুন :   মোদীর ব্রিগেডে মহাগুরুর আবির্ভাব! সত্যি কি বাংলার মসনদ দখলে MLA ফাটাকেষ্ট

তিনি ছোট বেলায় সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের কোলে করেও ঘুরেছেন পারিবারিক সম্পর্ক থাকার কারণে। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও প্রসেনজিৎতের ময়ূরাক্ষী’ সিনেমাটি একটি মাইলস্টোন হয়ে রয়েছে। এছাড়াও তিনি বাবা কেন চাকর’, ‘সমাধান’, ‘পবিত্র পাপী’ আরো অনেক-অনেক ছবিতে একত্রে অভিনয় করেছেন।

কাজের সূত্রে তাকে সত্যজিৎ থেকে সৃজিত সকল পরিচালকের সাথে কাজ করতে হয়েছে। সৃজিত মুখার্জী বর্তমান সময়ের এক বিখ্যাত পরিচালক। সৃজিত মুখার্জীও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছেন। তিনি সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সাথে মাত্র একটি কাজ করেছিলেন বর্তমানে এটি তার একমাত্র আফসোস।

আরও পড়ুন :   ফুলশয্যার রাতে 'টুম্পা' গানে তুমুল নাচ করলেন তৃণা সাহা, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

সৃজিত মুখার্জী শ্রদ্ধাঞ্জলিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় সম্পর্কে বললেন,’ওনাকে নিয়ে আলাদা করে কী বলব! উনি একজন ইনস্টিটিউশন। বিশাল একটা বট গাছের মতো। যার প্রত্যেক শাখা থেকে ঝরে পরছে শিক্ষা, মেধা এবং অকল্পনীয় ঐতিহ্য। সেই ঐতিহ্যের হাত ধরে আমাদের শিক্ষা।

আরও পড়ুন :   অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালু করলেন সোনু সুদ, বিনামূল্যে মিলবে পরিষেবা

ওঁর সঙ্গে আমি একটাই ছবি করেছি হেমলক সোসাইটি। ওইটুকু সময়ের মধ্যেও যতটা শেখা যায় ততটা শেখার চেষ্টা করেছি। ওঁকে নিয়ে বলার মতো আমার সত্যিই কোনও যোগ্যতা নেই’।

সৌমিত্রর দীর্ঘ অভিনয়জীবনকে মনে রেখে কথাপ্রসঙ্গে সৃজিত জানিয়েছেন, তাঁর বিচারে সৌমিত্রর সেরা পাঁচটি ছবির কথা। সেগুলি হল- ‘অপুর সংসার’, ‘চারুলতা’, ‘বাক্সবদল’, ‘অপরিচিত’,’তিনভুবনের পারে’।