অনলাইনেই পরীক্ষা নিয়ে নজির গড়ল রায়গঞ্জ গার্লস

Online-Classes

নিজস্ব প্রতিবেদন: রাজ্যে প্রথম নজির গড়ল রায়গঞ্জের একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এতদিন বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনলাইনে পড়াশোনা চলছিল তো বটেই, এবার ছাত্রছাত্রীদের পরীক্ষাতেও অনলাইন ব্যবস্থা বেছে নিয়েছে রায়গঞ্জ গার্লস প্রাথমিক বিদ্যালয়।

জানা যাচ্ছে, বেলা ১১টা থেকে অনলাইনে প্রথম শ্রেণীর পরীক্ষা হয়েছে। প্রায় ৯০ শতাংশ ছাত্রছাত্রী এই পরীক্ষা দিয়েছে। স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, স্কুলের শিক্ষিকা প্রীতি মল্লিক এই অনলাইন পরীক্ষাটি নিয়েছেন। আগামি ২২তারিখ এই পরীক্ষার ফলাফল অনলাইনেই দেওয়া হবে৷ এভাবেই তিনটি পর্বের পরীক্ষা নিয়ে বছরের শেষে ফাইনাল রেজাল্ট নির্ধারিত হবে৷ এই ব্যবস্থায় অভিভাবকদেরও মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ দেখা দিয়েছে৷

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গৌরাঙ্গ চৌহান জানিয়ছেন, ‘বাকি ক্লাসের পরীক্ষাও এভাবে পর্যায়ক্রমে হবে৷ আমরা চাই জেলাতে লকডাউনের কারনে স্কুল বন্ধ থাকলেও ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনা ও পরীক্ষা স্বাভাবিক ভাবে চলুক৷’
১৫ জন ছাত্রছাত্রী নিয়ে করোনা সচেতনতা ও বাংলা, অঙ্ক, ইংরেজী বিষয়ের পাঠদান করা হয়েছে। প্রত্যন্ত গ্রামে আদিবাসী শিশুদের খাতা, কলম, মাস্ক দিয়ে সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে গাছতলায় বোর্ড ও চার্ট নিয়ে পাঠদান করা হয়েছে৷ পাঠদানে উপস্থিত ছিলেন গৌরাঙ্গ চৌহান, অরবিন্দ সিং, লিয়াকত হোসেন, বিপ্লব মন্ডলের মত শিক্ষক নেতৃত্বরা৷

বেলা ১১টা থেকে অনলাইনে প্রথম শ্রেণীর পরীক্ষা হয়েছে। প্রায় ৯০ শতাংশ ছাত্রছাত্রী এই পরীক্ষা দিয়েছে। স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, স্কুলের শিক্ষিকা প্রীতি মল্লিক এই অনলাইন পরীক্ষাটি নিয়েছেন। আগামি ২২তারিখ এই পরীক্ষার ফলাফল অনলাইনেই দেওয়া হবে৷ এভাবেই তিনটি পর্বের পরীক্ষা নিয়ে বছরের শেষে ফাইনাল রেজাল্ট নির্ধারিত হবে৷ এই ব্যবস্থায় অভিভাবকদেরও মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ দেখা দিয়েছে৷ রাজ্যের প্রথম বিদ্যালয় এটি, যেখানে অনলাইনে সুস্থ ভাবে পরীক্ষা হয়েছে।