বিনোদনভাইরাল

স্বল্প পোশাকে ক্যাটরিনার সঙ্গে তুমুল নাচলেন রানু মণ্ডল, ভক্তদের বানানো ভিডিও মুহূর্তেই ভাইরাল

কেমন লাগে বলুন তো হঠাৎ করে যদি আপনার হাতে এক বিশাল অংকের টাকা চলে আসে? তখন কি করবেন কখনো ভেবে দেখেছেন? হাম এমনই হয়েছিল ঠিক রানাঘাটের রানু মন্ডল এর জীবনে ।একেবারে হাতে চাঁদ পাওয়ার মতো অবস্থা। তবে প্রথমদিকে রানু মন্ডলের জীবনটা চাঁদ পাওয়ার মত অবস্থায় থাকলেও হঠাৎ সমস্ত কিছু হয়ে যায় নিশ্চিহ্ন। শোনা যায় রানু মন্ডল তার ফ্যানের সঙ্গে যথাযথভাবে খারাপ ব্যবহার ফলে তার অনেকটা অধঃপতন হয়েছে ক্যারিয়ার জীবনে।

২০১৯ সালের দুর্গাপুজো চারিদিকে প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে রানু মন্ডল এর নতুন গান গাচ্ছিলো ‘ তেরি মেরি’। গানটা বলতে গেলে মানুষের মন জয় করে নিয়েছিল, এবং সেইসঙ্গে এরকম হঠাৎ উঠে আসা অসহায় মানুষটির জীবনের পরিবর্তন প্রত্যেকেই ভালো চোখে নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাকে অনেক শুভেচ্ছা জানিয়ে ছিল। কিন্তু হঠাৎ কী হলো? রানু মন্ডল দর্শকদের মন থেকে দূরে সরে যাওয়ার কারণ কি ছিল?

আসলে বলা হয় প্রত্যেকটা মানুষের জীবনে অহংকার জিনিসটা এক চরম পর্যায়ে নিয়ে যায় যেখানে মানুষ অনেক কিছু পেয়েও অনেক কিছু হারিয়ে ফেলে। ঠিক তেমনই হয়েছে রানু মন্ডল এর সাথে, হঠাৎ উঠে আসার ফলে অনেক মানুষ ই তাকে অনেক ভালোবাসা খুব অল্প সময় দিয়েছিল, কিন্তু হঠাৎ এক ফ্যানের সাথে দুর্ব্যবহারের জন্য তৈরি হয়ে গেল তার ফ্যানদের সঙ্গে তার দূরত্ব।

জানা যায় একটি শপিং মলে তারই এক ভক্ত তার সঙ্গে সেলফি তুলতে চাওয়ার ফলে হঠাৎ ই রেগে যায় এবং তাকে বলে ওঠে ‘ডোন্ট টাচ মি’। এই রকম অপমান করার ফলে ভক্তদের মনে তার জন্য তৈরী হয় এক বিদ্বেষ এবং যার ফলে খুব অল্পসময়ের মধ্যেই যেমন তাকে মনে জায়গা দিয়েছিল ঠিক তেমনি খুব অল্প সময়ের মধ্যে মানুষের মনের থেকে তিনি দূরে চলে যান।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রানু মন্ডল কে নিয়ে নানা রকম ট্রোল তৈরি করা হয় এবং যেখানে শর্ট ড্রেস পরিয়ে তাকে বিভিন্ন রকম গানে নাচ করানো হয় এবং যার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ভাইরাল হয় জারা জারা টাচ মি গানটির ওপর তৈরি হওয়া ট্রলটি।

তবে শেষ পর্যন্ত হয়তো বোঝাই যায় যে অহংকার নিশ্চয়ই অধঃপতনের কারণ। দর্শকরা যেমন খুব অল্প সময়ে কোন মানুষকে একজন সেলিব্রেটি তৈরি করতে পারে তেমনি খুব অল্প সময়ে তাকে সাধারণ মানুষের পরিণত করতেও পারে।

Related Articles

Back to top button