নিউজবিনোদন

সুশান্ত মামলায় ভুল করেও সালমান খানের নাম নয়! কঠোর শাস্তির নির্দেশ দিল আদালত

সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই বলিউডের একাংশের ওপর ক্ষুব্ধ হয়েছে জনগণ। কয়েক মাসের মধ্যে এভাবে বলিউডের প্রথম সারির নায়ক নায়িকাদের টিআরপিতে এতটা কমে যাবে তা হয়তো তারা কোনদিন কল্পনাতেও ভাবতে পারেনি। বিহার মুম্বাই সহ বিভিন্ন রাজ্যে ইতিমধ্যেই ব্যান করে দেওয়া হয়েছে নামিদামী পরিচালক এবং অভিনেতা-অভিনেত্রীদের সিনেমা। অনেক কষ্ট করেও তারা জনগণের মধ্যে আর ভালোবাসা জাগিয়ে উঠতে পারছেন না। সবথেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে মহেশ ভাট, আলিয়া ভাট, করান জহার এবং সালমান খানের। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে সালমান খানের বিগ বসের প্রস্তুতি।কিন্তু চ্যানেল প্রস্তুতকারক রয়েছেন খুবই চিন্তার কারণ আগের বছর পর্যন্ত যেভাবে সালমান খান এই জনপ্রিয় রিয়েলিটি শোটি কে টিআরপি তুঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন, চলতি বছরে সুশান্তের মৃত্যুর কারণে সালমান খানের জনপ্রিয়তা যেভাবে হ্রাস পাচ্ছে, তাতে এই জনপ্রিয় রিয়েলিটি শোটি খুব একটা জনপ্রিয়তা পাবে না’ তা বলাই বাহুল্য।

সম্প্রতি সুশান্ত প্রাক্তন ম্যানেজার মৃত্যু নিয়ে ছড়িয়েছে গুঞ্জন। দিশার মৃত্যুতে নাকি জড়িয়ে রয়েছে আরবাজ।সেই প্রসঙ্গে আনঅফিশিয়ালী আরবাজ খান কে নাকি জেল হেফাজতে রাখা হয়েছে। শুধুমাত্র দাদা নয় ভাই সালমানের নাম জড়িয়েছে তাতে।

এসমস্ত ভুয়া খবর থামানোর জন্য তৎপর হয়েছেন আরবাজ খান। যেভাবে সুশান্ত সিং রাজপুত এবং তার প্রাক্তন ম্যানেজার মৃত্যুতে আরবাজ খান এবং তার পরিবারের নাম জড়ানো হয়েছে, তার জন্য অবিলম্বে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন। তিনি করেছেন মানহানির মামলাও। একাধিক ভুয়া খবর এবং গুজবের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয়ে জনৈক বিভোর আনন্দ, সাক্ষী ভান্ডারী সহ একাধিক অভিযুক্তের বিরুদ্ধে নালিশ জানিয়েছেন আরবাজ খান।

আরবাজ খানের এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এবার কড়া নির্দেশ দিলেন বোম্বের দেওয়ানী আদালতের বিচারপতি ভি ভি বিদ্যান।সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে আরবাজ খান এবং তার পরিবারের বিরুদ্ধে বিনা কারণে কোনো রকম ভুল খবর রটানো যাবে না। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে এইরকম ভুয়া খবর অবিলম্বে সরিয়ে দেবার জন্য নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

Related Articles

Back to top button