ট্রেনের মহিলা কম্পার্টমেন্টে হস্তমৈথূন! প্রতিবাদ করলেন স্যান্ডি সাহা

212

ইউটিউবার হিসাবে স্যান্ডি সাহা (Sandy Saha) অত্যন্ত বিখ্যাত নাম। কৌশলে স্যান্ডি প্রতিবাদ করতে জানেন। কখনও আবার তিনি মজাদার ভিডিও শেয়ার করেন। কিন্তু এবার নারীদের শ্লীলতাহানির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলেন তিনি।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি যুবক ট্রেনের মহিলা কামরায় উঠে মেয়েদের উত্ত‍্যক্ত করছে। কখনও মহিলাদের ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে, কখনও বা শ্লীলতাহানির চেষ্টা করছে। এমনকি সে নিজের পুরুষাঙ্গ দেখিয়ে মহিলাদের হুমকি দিচ্ছে। অধিকাংশ মেয়েরা ভয়ে চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করলে পাশের জেনারেল কামরার যাত্রীদের কানে যায়। তাঁদের মধ্যে কয়েকজন পুরুষ যাত্রী স্টেশনে ট্রেন থামতেই মহিলা কামরা থেকে ওই লোকটিকে পাকড়াও করে মারতে মারতে স্টেশনে নামিয়ে দেন। জানা গিয়েছে, এটি মেদিনীপুর লোকালের ঘটনা। সকালের ট্রেনে ঘটে ঘটনাটি।

আরও পড়ুন:   বৈশাখীর পর ‘কালবৈশাখী’, প্রকাশ্যে রাস্তায় 'মম চিত্তে' গানে নেচে সকলের নজর কাড়লেন স্যান্ডি!

স‍্যান্ডি সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভে এসে এই ভিডিওটি নিয়ে প্রতিবাদ করে বলেন, ওই লোকটিকে জুতো পেটা করা উচিত ছিল। তিনি পুলিশ-প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন যাতে এই ধরনের ঘটনা আর না ঘটে। রেলের উচিত প্রতিটি মহিলা কামরায় একজন করে পুলিশ দেওয়া যাতে মহিলাদের নিরাপত্তা বজায় থাকে। স‍্যান্ডি জানিয়েছেন, তিনি নিজেও এই ধরনের ঘটনার সম্মুখীন হয়েছেন। এমনকি নিজের চোখে এই ধরনের অসভ্যতা দেখেছেন। অনেকেই দাবি করেছেন, ওই যুবক মানসিক ভাবে অসুস্থ। কিন্তু স‍্যান্ডির মতে, কিছু লোক ইচ্ছাকৃত এই ধরনের ঘটনা ঘটায় এবং পরে পাগল সাজে।

আরও পড়ুন:   সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে স্যান্ডিকে বিয়ে করলেন অভিনেতা যশ, ভিডিও শেয়ার করে লিখলেন ‘বিয়ে সম্পূর্ণ হল’

একই সঙ্গে স‍্যান্ডি মহিলাদের কাছে অনুরোধ করেছেন, যখন একজন মেয়ের সাথে এই ধরনের ঘটনা ঘটবে, তখন সবাই মিলে একজোট হয়ে ছেলেটিকে শাস্তি দেওয়া উচিত ছিল। একজন মহিলা চটি দিয়ে মারলেও বাকিরা দূরে দাঁড়িয়ে দেখছিলেন, এটি দেখার পর বাকি মহিলাদের তীব্র নিন্দা করেছেন তিনি। তাঁর মতে, প্রতিবাদ না করলে এই ধরনের ঘটনা আরো বাড়বে। নেটিজেনদের একটি বড় অংশও ওই যুবকের শাস্তি চেয়ে প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন।