বিনোদন

‘সুশান্তের উপর দোষ চাপিয়ে সাধু সাজতে চাইছেন সারা ও শ্রদ্ধা’, বোমা ফাটালেন যুবরাজ সিং

এনসিবির জেরায় যেন কোমর বেঁধে প্রস্তুতি নিয়ে নেমেছেন সারা ও শ্রদ্ধা। প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত মারা যাওয়ার পর থেকে এনসিবি জোরদার তদন্ত শুরু করেছে বলিউডের ড্রাগ স্মাগলিং নিয়ে। ইতিমধ্যে অনেক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে, অনেক বলিউড অভিনেতা অভিনেত্রীকেও জেরা করা হয়েছে। শনিবার তাদের তালিকায় ছিল শ্রদ্ধা কাপুর সারা এবং দীপিকা। সবাই যেন প্রস্তুতি নিয়েই এনসিবির সাথে মোকাবিলা করছে নিজেদের বাঁচানোর জন্য। কারণ তারা জানে তাদের দোষ প্রমাণিত হলে এনডিপিএস অ্যাক্ট অনুযায়ী তাদের চূড়ান্ত শাস্তি হতে পারে। জানা গিয়েছিল দীপিকা পাড়ুকোন এনসিবি অফিসারদের সম্মুখীন হওয়ার সময় কিছু বার কান্নাকাটিও করেন।

কিন্তু সারা ও শ্রদ্ধা মানতে নারাজ যে তারা ড্রাগ ডিলিং এর ব্যাপারে জানত, বা তারা ড্রাগ সেবন করত। তাদের মতামত অনুযায়ী তারা অভিযোগ বারবার সুশান্তের দিকেই ঠেলছে। প্রতিনিয়তঃ তারা বলে চলেছে যে, আমরা একাধিকবার সুশান্তকে ড্রাগ নিতে দেখেছি। এমনকি শুটিং চলাকালীন ও মাঝের মধ্যে সুশান্ত ড্রাগ সেবন করতে বলে জানিয়েছেন শ্রদ্ধা ও সারা। তবে সুশান্ত সিং এর বন্ধু যুবরাজ সিং এই ব্যাপারে মানতে নারাজ। তিনি বলছেন সারা এবং শ্রদ্ধা ইচ্ছা করে সুশান্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনছে নিজেদেরকে বাঁচানোর জন্য। যুবরাজ সারা ও শ্রদ্ধার এরকম অভিযোগের জন্য যথেষ্ট ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

ইতিমধ্যে এনসিবির জেরায় সারা স্বীকার করেছিল যে সে সুশান্তের সাথে থাইল্যান্ডে ঘুরতে গিয়েছিল কিন্তু একথা মানতে নারাজ যে সেখানে সে কোনরকম মাদকদ্রব্য সেবন করেছেন। অথচ সে এটাও বলেছে যে থাইল্যান্ডের ট্রিপে সুশান্ত একাধিকবার ড্রাগ নিয়েছিল কিন্তু আমি নিইনি। সুশান্তের ফার্ম হাউস এ সপ্তাহে ৫-৬ জন একত্রিত হত পার্টির জন্য। সেখানে সারা স্বীকার করে একবার সে শুধু গাঁজা সেবন করেছিলো কিন্তু কোনোরকম ড্রাগ ডিলিং এর ব্যাপারে সে জানে না।

যদিও তাদের মতামতে এনসিবি সন্তুষ্ট নয় তারা আরও পোক্ত প্রমাণ খুঁজছে। কারণ সকলেই জানে ড্রাগ ডিলিংয়ের দায় যদি কারোর ঘাড়ে চাপে তাহলে কেউই বাঁচবে না। এনসিবি আরো কঠোর তদন্তে নামছে।

Related Articles

Back to top button