বিনোদন

চুপিসারে বিয়ে সারলেন টেলি অভিনেত্রী প্রমিতা চক্রবর্তী! মুহূর্তে ভাইরাল হল ছবি

মিষ্টি মেয়ে প্রমিতা চক্রবর্তী। বধূবরণ ধারাবাহিকে অভিনয় করে প্রথম পদার্পণ করেছিলেন তিনি টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে। বহুদিন এই সিরিয়ালে অভিনয় করার পর তাকে দেখা গিয়েছিল জি বাংলার জনপ্রিয় সিরিয়াল সাত ভাই চম্পা ধারাবাহিকে। এরপর মোটামুটি সকলের কাছে একটি পরিচিতি পেয়ে যান প্রমিতা চক্রবর্তী। তার অভিনয় দক্ষতা এতটাই সুন্দর ছিল যে, সকলে তাকে পারুল বলে ডাকত।

সাত ভাই চম্পা ধারাবাহিকে রুদ্রজিত ওরফে রাঘবেন্দ্র অভিনয় করেছিলেন প্রমিতা চক্রবর্তী র সঙ্গে। কিন্তু অভিনয় করতে করতে কখন যে তারা একে অপরের প্রেমে পড়ে গেলেন, তা নিজেরাও বুঝতে পারেননি। এখন প্রেম এতটাই গভীর হয়ে গেছে যে, তারা একে অপরকে ছেড়ে থাকার কথা ভাবতেও পারেন না। খুব তাড়াতাড়ি তাদের প্রেম পরিণতি পেতে চলেছে। সামনে তাদের বিয়ে।

কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়াতে সম্প্রতি এমন একটি ছবি ভাইরাল হলো, যা দেখে আপনিও প্রশ্ন করে বসবেন যে, তাহলে কি প্রেমিকের সাথে ছবি ছবি বিয়ে সেরে ফেললেন এই অভিনেত্রী? কি বলছে প্রমিতার ইনস্টাগ্রম স্টরি? দেখে নিন এক নজরে।

আসলে সম্প্রতি তিনি একটি ফটোশুট করেছেন। যেখানে তাকে দেখা যাচ্ছে বিয়ের বধু সাজে সেজে থাকতে। তার পরনে রয়েছে লাল বেনারসি, গা ভর্তি সোনার গয়না, মাথাভর্তি সিঁদুর, হাতে শাখা এবং পলা, মাথায় জুঁই ফুলের খোপা। তাকে দেখে যেন চোখ ফেরানো যাচ্ছে না।

বিয়ের সাজ নিয়ে তিনি সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন যে, তিনি এরকম হবু-স্বামীর কথা ভেবে সেজেছেন। নিজেদের আসল বিয়ে এবং এনগেজমেন্টের দিন ইতিমধ্যেই ঘোষণা করে দিয়েছেন পারুল এবং রাঘবেন্দ্র। আগামী বছর ভ্যালেন্টাইন্স ডের দিন পুরুলিয়ার একটি রিসোর্টে নিজের আইনে বিবাহে আবদ্ধ হবেন। শুধুমাত্র পরিবারের ঘনিষ্ঠদের উপস্থিতিতে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবেন। এদিন তারা প্লান করেছেন যে, সকলে মিলে ঋত্বিক রোশনের ঘুঙরু গানে কাপল ডান্স করবেন।

তবে সামাজিক ভাবে তারা বিয়ে করবেন ২০২২ সালে। বিয়ের পর তারা থাকবেন কলকাতা টালিগঞ্জ এর করুণাময়ী তে। সম্প্রতি সেখানকার একটি ফ্ল্যাটে লক্ষ্মী পুজোর দিন তারা গৃহ লক্ষ্মীর আরাধনা করেছেন। চলতি বছরে পুজোয় তারা একসাথে কাটিয়েছেন পুরুলিয়াতে। সেই ছবি ও তারা শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। বর্তমানে প্রমিতা এখানে আকাশ নীল, সিরিয়ালে অভিনয় করছেন। রুদ্রজিত অভিনয় করছেন জীবনসাথী সিরিয়ালে।

Related Articles

Back to top button