বিনোদন

সিদ্ধার্থের সাথে হয়েছিল ব্রেক-আপ? মুখ খুললেন অভিনেত্রী শেহনাজ গিল

ধীরে ধীরে আবারও কামব‍্যাক করছেন শেহনাজ গিল (Shehnaz Gill)। কিছুদিন আগে মুক্তি পেয়েছে শেহনাজ অভিনীত ফিল্ম ‘হোঁসলা রাখ’। এই ফিল্মে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেছেন দিলজিৎ দুসাঞ্জ (Diljit Doosanj)। ফিল্মটি যথেষ্ট হিট হয়েছে। এর মধ্যেই সিদ্ধার্থ (Siddharth Shukla) ও শেহনাজের সম্পর্ক নিয়ে ছড়িয়ে পড়েছে গুজব। শোনা যাচ্ছে, তাঁদের ব্রেক-আপ হয়ে গিয়েছিল।

সিদ্ধার্থ ও শেহনাজের আলাপ হয়েছিল বিগ বসের ঘরে। সেখানে তাঁদের ঘনিষ্ঠতা দেখে সবাই অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। সিদ্ধার্থ ও শেহনাজের বন্ধুত্ব ক্রমশ গাঢ় হয়েছিল। বিগ বসের ঘরে শেহনাজ একাধিক বার সিদ্ধার্থকে নিজের মনের কথা জানালেও সিদ্ধার্থ কিন্তু নিজের মুখে কোনোদিন শেহনাজের প্রতি দুর্বলতার কথা বলেননি। এমনকি বিগ বসের ঘরের বাইরেও তাঁদের বন্ধুত্ব কায়েম ছিল। বিগ বসের ঘরে তাঁদের রসায়ন দেখে তাঁদের অনুরাগীরা এই জুটির নাম দিয়েছিলেন ‘সিডনাজ’। পরবর্তীকালে সিডনাজের জন্য গড়ে ওঠে একাধিক ফ্যান ক্লাব ও ফ্যানপেজ। সিদ্ধার্থ ও শেহনাজের যৌথ ব্র্যান্ড ভ্যালুর কারণে তাঁদের নিয়ে বেশ কয়েকটি প্রজেক্ট তৈরি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এগুলির মধ্যে একটিমাত্র মিউজিক ভিডিও ‘হ্যাবিট’-এর কাজ করেছিলেন দুজনে। ‘হ্যাবিট’-এর কিছু কাজ অপূর্ণ থেকে যায় সিদ্ধার্থের অকালপ্রয়াণের কারণে। অসম্পূর্ণ মিউজিক ভিডিও হিসাবে রিলিজ করে ‘হ্যাবিট’।

আরও পড়ুন:   ভিডিওমিষ্টি ইমেজ বিদায় হট ও গ্ল্যামারগার্লে মধুমিতা, বোল্ড লুকে ছক্কা হাঁকালেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী, ভাইরাল ভিডিও

এরপর থেকেই সিদ্ধার্থ ও শেহনাজের ব্রেক-আপ সম্পর্কিত গুজব রটতে শুরু করে। বারবার তাঁদের সম্পর্ককে প্রেমের নাম দেওয়ার চেষ্টা হলেও সিদ্ধার্থ কিন্তু মৃত্যুর কয়েক দিন আগেও টুইটারে টুইট করে লিখেছিলেন, তিনি সিঙ্গল। সিদ্ধার্থের মৃত্যুর পর নিজেকে কার্যতঃ গুটিয়ে নিলেও পরিস্থিতি শেহনাজকে স্বাভাবিক করে তুলছে। সিদ্ধার্থ ও নিজের ব্রেক-আপের খবরে তিনি জানিয়েছেন, এটি অত্যন্ত ভিত্তিহীন একটি খবর। এই ঘটনা কোনোদিন ঘটবে না।

আরও পড়ুন:   দুর্ঘটনায় পুড়ে গেছে শরীরের অনেকটা অংশ, মনের জোরেই খেলার জগতে সেরার সেরা হল উড়িষ্যার কন্যা

পয়লা সেপ্টেম্বর একটি মিটিং থেকে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বাড়ি ফিরে আসেন সিদ্ধার্থ। তাঁর মা রীতা শুক্লা (Rita Shukla) তাঁকে লেবুজল খেতে দেন। এরপর মায়ের পরামর্শে বিশ্রাম করতে চলে যান সিদ্ধার্থ। এরপর ভোররাতের দিকে তীব্র শারীরিক অস্বস্তি অনুভূত হলে সিদ্ধার্থ নিজের মাকে ডাকেন। মায়ের কাছে জল চেয়ে খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন তিনি। সকালে তাঁর ঘুম না ভাঙায় রীতা তাঁদের পারিবারিক চিকিৎসক ও নিজের মেয়েদের ডেকে পাঠান। চিকিৎসক এসে সিদ্ধার্থকে দ্রুত কুপার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

কুপার হাসপাতালে নিয়ে গেলে সিদ্ধার্থকে মৃত ঘোষণা করা হয়। পোস্ট মর্টেম রিপোর্টে জানা যায়, ঘুমের মধ্যেই কার্ডিয়াক অ্যারেস্টের ফলে মৃত্যু হয়েছে সিদ্ধার্থের। 3রা সেপ্টেম্বর ওশিওয়ারা শ্মশানে ব্রহ্মকুমারী রীতিতে সিদ্ধার্থের শেষকৃত‍্য সম্পন্ন হয়। সিদ্ধার্থকে অন্তিম বার দেখতে শ্মশানে এসেছিলেন শেহনাজ। সিদ্ধার্থের চিতায় অগ্নিসংযোগ হতেই কাঁদতে কাঁদতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েছিলেন তিনি। সিদ্ধার্থের মৃত্যুর প্রায় দুই মাস পরে সিদ্ধার্থের উদ্দেশ্যে ট্রিবিউট দিয়ে ‘তু এঁহি হ্যায়’ নামে একটি মিউজিক ভিডিও তৈরি করেছেন শেহনাজ। এই ভিডিওয় ধরা রয়েছে সিদ্ধার্থ ও তাঁর কিছু বিশেষ মুহূর্ত।

Related Articles

Back to top button