রিয়াকে নিয়ে সিনেমা বানাতে চায় এই অভিনেতা, তুমুল হইচই সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে

মঙ্গলবারই সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু কাণ্ডে মাদক যোগের অভিযোগে এনসিবি গ্রেফতার করেছে সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে।রিয়ার গ্রেফতারিতে কেউ কেউ খুশি হলেও বলিউডের একাংশ একেবারেই খুশি হয়নি তা বলাই বাহুল্য। ইতিমধ্যেই এনসিবি হেড কোয়ার্টার থেকে বাইকুলা জেলে নিয়ে আসা হয়েছে রিয়া চক্রবর্তীকে। এরই মাঝে রিয়ার পাশে থাকার আশ্বাস দিলেন প্রযোজক-অভিনেতা নিখিল দ্বিবেদি।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ৮১ দিন পর গ্রেফতার করা হয়েছে রিয়াকে। লাগাতার তিনদিন জেরার পর মঙ্গলবারও এনসিবি জেরা করে রিয়া চক্রবর্তীকে। একটানা জেরার মুখে পড়ে রিয়া স্বীকার করেন সে ড্রাগ নিতেন। এমনকি মাদক সেবন করতেন নিয়মিত। আর তারপরই গতকাল গ্রেফতার করা হয় রিয়াকে। সূত্রের খবর, NDPS আইনের ৬৭ নম্বর ধারায় রিয়া চক্রবর্তী তাঁর দোষ কবুল করেছেন। মঙ্গলবার রাতে তাঁর বেলের আবেদন খারিজ করে আদালত। যদিও বুধবার ফের নতুন করে জামিনের আবেদন করেন রিয়ার আইনজীবী। রিয়াকে আপাতত ১৪ দিনের বাইকুলা জেলে হেফাজতে রাখার নির্দেশ আদালতের৷ বেল না হওয়া পর্যন্ত এখানেই থাকতে হবে তাঁকে।

তবে,রিয়া গ্রেফতার হওয়ার পর নিখিল ট্যুইট লেখেন ‘রিয়া আমি তোমাকে চিনি না৷ তুমি হয়তো খুব বাজে, যেভাবে দেখানো হচ্ছে, তার থেকেও বাজে৷ তবে তোমার সঙ্গে যা যা ঘটে চলছে তা খুবই অসম্মানজনক৷ তুমি লড়ে যাও৷ এসব যখন মিটে যাবে, তোমাকে নিয়ে সিনেমা বানাবো’।

প্রসঙ্গত, সুশান্ত মৃত্যুরহস্যর তদন্তে নেমে এক হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে নিষিদ্ধ মাদক পাচার চক্রের হদিশ পায় ইডি। আর সেখান থেকেই পর্দা ফাঁস হয় এক এক করে। মাদক চক্রে জড়িত থাকার কারণে ইতিমধ্যেই সুশান্ত সিং রাজপুতের হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডা, রিয়া চক্রবর্তীর ভাই সৌভিক চক্রবর্তীকে আটক করা হয়েছে। আর তদন্তকারীদের জেরার মুখে দিদির কীর্তি ফাঁস করে দেয় রিয়া চক্রবর্তীর ভাই সৌভিক। আর তারপরেই লাগাতার জেরা করা হয় রিয়া চক্রবর্তীকে। এরপরই বুধবার গ্রেফতার করা হয় রিয়া চক্রবর্তীকে। রিয়ার আইনজীবীর চেষ্টা কোনও কাজে আসেনি। জামিনের আবেদন করা হলে, তা খারিজ করে দেওয়া হয়। আপাতত ১৪ দিন জেল বন্দী অভিনেত্রী। অন্যদিকে, বলিউডের মাদকচক্র নিয়েও নানা তথ্য উঠে এসেছে।