পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে উল্টে গেল বাস, জলপাইগুড়ির দিকে যাচ্ছিল বাসটি

বাংলায়ও এবার পরিযায়ী শ্রমিক দুর্ঘটনা। রবিবার সকালে একটি দুর্ঘটনায় পনেরো জন পরিযায়ী শ্রমিক আহত হয়েছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাসটি জলপাইগুড়ির দিকে যাচ্ছিল। হঠাৎ ধুপগুড়ি ব্লকের কাছে বাসটি উল্টে যায়।

একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটে চলেছে। কোথাও পরিযায়ী শ্রমিকরা প্রাণ হারাচ্ছেন, কোথাও তারা গুরুতর আহত হয়েছেন। মহারাষ্ট্র ও উত্তর প্রদেশের পরে বাংলাও এই তালিকা তৈরি হয়েছে। রবিবার সকালে একটি দুর্ঘটনায় পনেরো জন পরিযায়ী শ্রমিক আহত হয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাসটি জলপাইগুড়ির দিকে যাচ্ছিল। হঠাৎ ধুপগুড়ি ব্লকের কাছে বাসটি উল্টে যায়। রবিবার সকালে এই ঘটনাটি এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করে। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১৫ জন শ্রমিক। সূত্র জানায়, বাসের চালক পালিয়ে গেছেন।

জানা গেছে যে এই শ্রমিকরা প্রত্যেকে সাহুডাঙ্গীতে একটি ইট ভাটাতে কাজ করতেন। বাসটি শ্রমিকদের নিয়ে কোচবিহার যাচ্ছিল। আহত পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে তিন শিশু ও চারজন নারী রয়েছে। সবাইকে ধুপগুড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ইতিমধ্যে দুর্ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

এদিকে, শনিবার একটি ট্রাক দুর্ঘটনায় ২৪ জন পরিযায়ী শ্রমিক নিহত হয়েছেন। মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর প্রদেশের আড়াইয়া এলাকায়। ২৪ জন মারা গিয়েছিল এবং আরও অনেকে আহত হয়েছিল। তাদের হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। শ্রমিকরা রাজস্থান থেকে আসছিল বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, পরিযায়ী শ্রমিকরা একটি ট্রাকে করে ভ্রমণ করছিলেন। কিন্তু অন্য একটি ট্রাক আড়াইয়ায় এসে শ্রমিকদের ট্রাকটিকে ধাক্কা দেয়। ফলে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব শ্রমিকদের হত্যা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন। শনিবার সকালে হিন্দিতে অখিলেশ টুইট করেছেন শ্রমিকদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।