খরচ মাত্র ৭ টাকা, একবার চার্জ দিলেই ১০০ কিমি ছুটবে এই বাইক

বর্তমানে জীবাশ্ম জ্বালানির অভাব ও সেইসাথে পরিবেশ দূষণ রোধ করতে বেশিরভাগ অটোমোবাইল কোম্পানি ইলেকট্রিক গাড়ি বা বাইক তৈরীর ওপর জোর দিচ্ছে। তেমনি হায়দ্রাবাদের একটি ইলেকট্রিক অটোমোবাইল স্টার্টআপ কোম্পানি Automobile Private Limited একটি ইলেকট্রিক বাইক ভারতের বাজারে লঞ্চ করছে। তারা তাদের রেট্রো, ভিন্টেজ ডিজাইনের ইলেকট্রিক বাইকটির নাম রেখেছে অ্যাটম ১.০। বাইকটি স্পেশালভাবে ভারতীয় গ্রাহকদের সুবিধার কথা ভেবে বানানো হয়েছে। কোম্পানির তেলেঙ্গানা ম্যানুফ্যাকচারিং সেন্টারে তারা বার্ষিক ১৫০০০ টি বাইক তৈরীর পরিকল্পনা নিয়েছে।

প্রথমেই আসা যাক নয়া অ্যাটম ১.০ ইলেকট্রিক বাইকটির ডিজাইন ও পারফরম্যান্স সম্বন্ধে। অ্যাটম ১.০ ইলেকট্রিক বাইকটির প্রধান আকর্ষণ বাইকটির ক্যাফে বাইকের মত ডিজাইন। বাইকে যে কোন রাস্তায় সহজে চলার মত ভারী টায়ার ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও বাইকে বসার ধরন ও সিট খুবই আরামদায়ক। বাইকটিকে দেখতে আকর্ষণীয় করার জন্য স্টাইলিশ হেডল্যাম্প ও টেলল্যাম্পের এর ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও আছে ডিজিটাল ডিসপ্লে ও ইন্ডিকেটর। কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে, এটা তাদের ভারতের বাজারে ইলেকট্রিক বাইক ব্যবহার প্রচলনের প্রয়াস মাত্র।

এরপর আসা যাক, অ্যাটম ১.০ ইলেকট্রিক বাইকটির পারফরম্যান্স সম্বন্ধে। বাইকটিতে ৬ কেজির পোর্টেবল লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি আছে। ব্যাটারিটি মাত্র ৪ ঘন্টায় পুরো চার্জ হয়ে যাবে এবং ফুল চার্জে বাইকটি প্রায় ১০০ কিলোমিটার পথ যেতে পারবে। ব্যাটারির ডিজাইন এমনভাবে করা হয়েছে যাতে সেটি খুলে যেকোন জায়গায় চার্জ করা যায়। চার্জ করতে লাগবে সাধারণ ৩ পিন সকেট। বাইকটিতে দু’বছরের ওয়ারেন্টিও পাওয়া যাবে। কোম্পানি দাবি করেছে, ১০০ কিমি পথ যেতে ব্যবহারকারীকে খরচ করতে হবে মাত্র ৭-৮ টাকা, যেখানে সাধারণ বাইক খরচ করে ৮০-১০০ টাকা।

অ্যাটম ১.০ ইলেকট্রিক বাইকটিকে International Center for Automotive Technology এর তরফ থেকে কম গতির বাইক বলে ঘোষণা করা হয়েছে। সেই জন্য বাইকটি চালাতে কোন লাইসেন্স লাগবে না অথবা কিনতে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে না। কমবয়স্ক যুবক-যুবতীরাও এই বাইক চালাতে পারে। ভারতের বাজারে বাইকটির মূল্য মাত্র ৫০০০০ টাকা। দেশজুড়ে সমস্ত গ্রাহক কোম্পানির অনলাইন পোর্টালের মাধ্যমে বাইকটি কিনতে পারবেন। কোম্পানি তরফে জানানো হয়েছে, মার্কেটের চাহিদা অনুযায়ী কোম্পানি আরো ১০০০০ ইলেকট্রিক বাইক তৈরীর কাজ শুরু করেছে।