সংকটের আবহে সুখবর, রেলে ১.৪ লাখ শূন্যপদের জন্য হবে পরীক্ষা, জানালো রেলবোর্ড

এবার করোনার মাঝেই সুখবর দিলো রেল মন্ত্রক। ১.৪ লক্ষ শূন্য পদের জন্য পরীক্ষা নেওয়া হবে, ১৫ ডিসেম্বর ।এদিন কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল ঘোষণা করেন ডিসেম্বরে পরীক্ষা নেওয়া হবে। কম্পিউটারের মাধ্যমে নিয়োগের পরীক্ষা শুরু হবে ১৫ ডিসেম্বর থেকে। ইতিমধ্যেই ১,৪০,৬৪০টি শূন্যপদের জন্য আবেদন জমা পড়েছে প্রায় ২.৪২ কোটি, জনিয়েছেন রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান ভিকে যাদব ।

রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানের জানান, ”করোনার কারণে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হচ্ছিল না। ১৫ ডিসেম্বর থেকে কম্পিউটার মাধ্যমে পরীক্ষা নেওয়া শুরু হবে। শীঘ্রই বিস্তারিত ঘোষণা করা হবে”। সব মিলিয়ে তিন ধরনের পদের জন্য পরীক্ষা নেওয়া হবে। লেভেল ওয়ানে (ট্র্যাক মেইটেনার ও পয়েন্টসম্যান) শূন্যপদ ১,০৩,৭৬৯টি। ১৬৬৩টি পদ আইসোলেটেড ও মিনিস্ট্রিয়াল যেমন স্টেনো। ৩৫,২০৮ নন-টেকিনিক্যাল পদ যেমন গার্ড, অফিস ক্লার্ক, কর্মাশিয়াল ক্লার্ক ও অন্যান্য পদে নিয়োগ করা হবে বহু কর্মী।

অন্যদিকে এসবের মাঝেই খবর মিলেছে ১২ সেপ্টেম্বর থেকে দেশে আরও সচল হবে রেল যোগাযোগ। ট্রেনে চড়ার জন্য বুকিং করা যাবে ১০ সেপ্টেম্বর থেকেই। এদিন রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যান বিনোদ কুমার যাদব জানান, দেশের নানাপ্রান্তে আরও ৮০টি দূরপাল্লার প্যাসেঞ্জার ট্রেন নামানো হবে। করোনার সকল বিধি নিষেধ মেনেই দেশজুড়ে মঙ্গলবার থেকেই চালু হয়েছে আনলক-৪।

দেশে এই মুহূর্তে প্রায় ২৩০টি যাত্রীবাহী স্পেশ্যাল ট্রেন চললেও তার যাত্রী সংখ্যা মাত্র ৭৫ শতাংশ। কিন্তু এসবের মাঝেই ভয়ানক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে রেল মন্ত্রক। আর এসবের মাঝেই এবার সুখবর দিলো কেন্দ্র। কারন লোকাল ট্রেন না চলার কারণে এবার স্পেশ্যাল ট্রেনের সংখ্যা বাড়াতে চাইছে রেল।