বিনোদন

সুখবর, মা হতে চলেছেন কমেডি কুইন ভারতী সিং, শুভেচ্ছার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়

বর্তমানে ভারতের সবচেয়ে বড়ো কমেডিয়ানদের মধ্যে একজন হলেন ভারতী সিং। তিনি এই জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছেছেন কাপিল শর্মা শোতে মজাদার জোকস বলে। তিনি সেরা কমেডি কুইন বলিউড পাড়ায়। কমেডিয়ান ভারতীর স্বামী হর্ষের সাথে প্রথম আলাপ হয় টেলিভিশন শো ‘কমেডি সার্কাস’-এর মঞ্চে। হর্ষ সেই শোয়ের স্ক্রিপ্টরাইটার ছিলেন। শো চলাকালীন তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব হয় এবং সেই বন্ধুত্ব পরবর্তীকালে প্রেমে পরিণত হয়। এরপর তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন ২০১৭ সালে।

বর্তমানের সবাই কমেডি হিট জুটি বলতে হর্ষ ও ভারতীকেই বোঝেন। সম্প্রতি তারা সকল দর্শকদের মন জয় করেছেন খাতরোকে খিলাড়ি শোটিতে। টেলিভিশনের রিয়ালিটি শো ডান্স প্লাসে তাদের দুজনকে পরিচালক হিসেবে দেখা যাচ্ছে। খুশির খবরটি ভারতী সেই শোয়ের দর্শকদের সামনেই শেয়ার করেন। তার প্রথম শিশু ২০২১ এ পৃথিবীর আলো দেখতে চলেছে।

গত রাতের এই রিয়ালিটি শোটিতে বিচারক হিসাবে এসেছিলেন কোরিওগ্রাফার-চলচ্চিত্র নির্মাতা ফারাহ খান। আর সেই সুযোগেই তিনি তার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার সুখবরটি সবার সাথে ভাগ করে নেয়। গতকাল রোমান্টিক স্পেশাল পর্ব চলছিল। সেই সুযোগে রোমান্টিক গানে নাচতে দেখা গেল হর্ষ ও ভারতীকে।

পারফরম্যান্স শেষ হলে সকলের প্রিয় গীতা বলেন, তিনি কোনদিন ভারতীর রিয়াকশন দেখতে পাননি হর্ষের রোমান্টিক কথায়। যখন তিনি ভালবাসা বুঝতে শিখেছেন তখনই হর্ষ তার জন্য রোম্যান্স এবং প্রেমের সমার্থক হয়ে দাঁড়িয়েছে, ভরতী উত্তরে এমটি বললেন গীতাকে। তিনি উত্তরে আরো বলেন, যে তাঁর দিন শুরু হয় ঈশ্বর অর্থাৎ স্বামী হর্ষের মুখ দেখে এবং তিনি শো-অফে একদমই বিশ্বাস করেন না। তিনি এক মুহূর্ত হর্ষকে এছাড়া তাঁর জীবন ভাবতে পারেন না এমনটি বললেন ভরতী।

ভারতী জানান তাঁর শ্বাশুড়ীর কথামত তিনি মা ও বৌমার দুইয়েরই দায়িত্ব সমান তালে তাল মিলিয়ে পালন করছে। ঠিক এরপরই একটি বাচ্চা পুতুল হাতে নিয়ে ভারতী বলেন, “হতে পারে আজ আমার কোলে নকল বাচ্চা, কিন্তু ২০২১ এ আমার হাতে সত্যিকারের বাচ্চাই থাকবে”।

এরপরই আনন্দের জোয়ার দেখা গেছে তার অনুরাগীদের মধ্যে। সকলকে প্রার্থনা করার জন্য অনুরোধ করেন কমেডিয়ান ভারতী, তিনি অনুরোধে বলেন, সবাই মিলে প্রার্থনা করুন, আমাদের প্রথম সন্তান যেন মেয়েই হয়।” অন্যদিকে মা হতে চলেছেন বলিউডের অনুষ্কা শর্মা ও করিনা কাপুর। বর্তমানে খুশির জোয়ার আছড়ে পড়েছে বলিউডে।

Related Articles

Back to top button