পাশে দাঁড়াতেন সব সময়, ইরফানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পাল্টে ফেলল গ্রামের নাম!

মহারাষ্ট্রে ছোট্ট একটি গ্রাম লগত পুরি। গ্রামে আট থেকে আশি সকলেরই কাছে প্রয়াত অভিনেতা ইরফান খান শুধুমাত্র একজন পর্দার হিরো ছিলেন না, ছিলেন রিয়্যাল লাইফ হিরো। সব সময় পাশে দাঁড়িয়েছিলেন গ্রামের। এই ভালবাসায় তারা বদলে ফেলল গ্রামের নাম।

গ্রামের মানুষের হৃদয়ে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন ইরফান খান। এই গ্রামেই জমি কিনেছিলেন তিনি।মাঝেমধ্যে পরিবারকে সঙ্গে নিয়ে আসতেন তিনি। গ্রামের মানুষ যখনই বিপদে পড়েছেন পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন তিনি। বহু দুস্থ অসহায় পরিবারকে সাহায্য করেছেন। গ্রামের শতাধিক দুস্থ ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশুনার দায়িত্ব কাধে তুলে নিয়েছেন তিনি। তাই সবচেয়ে কাছের মানুষ ও প্রিয় নায়ককে শ্রদ্ধা জানাতে নতুন নামকরণ করল ‘হিরো-চি-ওয়াদি’। এটি একটি মারাঠি শব্দ যার অর্থ হল ‘হিরোর প্রতিবেশী’।

গ্রামের জেলা পরিষদের সদস্য গোরখ বোড়কে বলেন, ‘উনি আমাদের অভিভাবকের মতো। একবার অ্যাম্বুলেন্স এর প্রয়োজন ছিল। ওঁকে জানালাম। একবারও না ভেবেই অ্যাম্বুলেন্স দান করলেন আমাদের গ্রামের জন্য। তিনি ছিলেন মাটির মানুষ মন খুলে সাহায্য করতেন।’

গ্রামে নেই কোন সিনেমা হল। তবু তারা 30 কিলোমিটার পায়ে হেঁটে ইরফান খানের সিনেমা দেখতে যেতেন। তাদের কাছে ইরফান বাস্তবের নায়ক। তবে আজ নায়ক নেই। গ্রাম জুড়ে রয়েছে ইরফানের হাজার স্মৃতি।