কিছুদিনের মধ্যেই ভারতে প্রতিদিনের সংক্রমণ সংখ্যা দাঁড়াবে ১৫ হাজার, জানালো চিন

এভাবে করোনার আক্রমণ সংখ্যা প্রতিদিনই ভারত নতুন রেকর্ড গড়ছে। এতে চীন ভীতিজনক তথ্য দিল। ভারতে সংক্রমণ সম্পর্কে চিনের সামনে নিয়ে আসা তথ্য উদ্বেগ বাড়িয়ে তুলছে। বিশ্বের ১৮০ টি দেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করতে গ্লোবাল কোভিড -১৯ প্রেডিক্ট সিস্টেমটি চীনের লানজু বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করেছে। সেখানে, ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছিল যে মঙ্গলবার 9,291 মানুষ ভারতে কোভিডে আক্রান্ত হবে। বুধবার সকালে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত পরিসংখ্যান এই সংখ্যার কাছাকাছি। লানজহু বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ভারতে পরবর্তী চার দিনের জন্য একটি করোনার গ্রাফও তৈরি করেছেন

লানজু বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন যে জুনের মাঝামাঝি সময়ে ভারতে করোনার সংক্রমণ প্রতিদিন 15,000-এ পৌঁছতে পারে। চিনা গবেষকদের এই উদ্বেগজনক পূর্বাভাসের মধ্যেই একটু স্বস্তি দিয়েছে ICMR-এর এক গবেষণা রিপোর্ট। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরীক্ষিত করোনায় সংক্রামিত 7 শতাংশেরই ‘হাই ভাইরাল লোড’ ছিল। অর্থাৎ সংক্রামিতরা গড়ে ৬.২৫ জনকে সংক্রামিত করতে পারে। এই গবেষণা অ্যাসিপটোমেটিক সংক্রামিত এবং ‘সুপার স্প্রেডার’ সনাক্তকরণে খুব কার্যকর হবে বলে আশা করা যায়।

এদিকে, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক বৃহস্পতিবার সকালে বলেছে, গত 24 ঘন্টার মধ্যে দেশে আরও একটি করোনার রেকর্ড করেছে। একদিনে 9,304 জন লোক আক্রান্ত হয়েছিল। আনলক -১ শুরু করার পর থেকে সারা দেশে করোনার শিকারের সংখ্যা লাফালাফি করে বাড়ছে। প্রতি 24 ঘন্টা অন্তর পূর্ববর্তী রেকর্ডটি ভঙ্গ হচ্ছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে জানা গেছে, গত 24 ঘন্টার মধ্যে ভারতে করোনাভাইরাসের 9,304 টি নতুন কেস পাওয়া গেছে।