আসাম বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তের সংখ্যা আরও বেড়ে ৩৬ লক্ষ

Assam

নিজস্ব প্রতিবেদন: এমনিতেই করোনার ভয়াবহতা, আর তার মধ্যেই বিপর্যস্ত অসম। ব্যাপক ভাবেই
বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে অসমের জনজীবন, বন্যা ও ভূমিধসের ফলে কমপক্ষে ৯২ জনের মৃত্যু হয়েছে।
এমনকি ক্ষতির সংখ্যা ৩৬ লক্ষ ছাঁড়িয়েছে অনেক আগেই।

বিস্বাদের সুরে গোটা পৃথিবী। রাস্তায় নেই ব্যস্ততা। একের পর এক নক্ষত্র পতনের গল্পে কাঁদছে সবাই। কবে আসবে করোনার ভ্যাকসিন? নেই তার খোঁজ। একের পর এক নতুন নতুন উপসর্গ, আক্রান্তের সংখ্যা লাগামছাড়া, আর তারই মধ্যে অসম কাঁদছে বন্যায়।

রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের তরফে প্রকাশিত বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে অসমের বিভিন্ন জায়গায় প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে আর এর ফলেই ব্রহ্মপুত্র-সহ বেশিরভাগ নদ-নদীর জলই রেড অ্যালার্ট এর উপর দিয়ে বইছে।

এখনও পর্যন্ত রাজ্যের বিভিন্ন জায়গাতে বন্যার ফলে ৬৬ জন ও বৃষ্টির জেরে হওয়া ভূমি ধসের ফলে ২৬ জনের মৃত্যু খবর পাওয়া গিয়েছে। বুধবারই বন্যায় মারা গিয়েছেন সাতজন।

অসমের ২৬টি জেলার বিস্তীর্ণ অঞ্চল জলের তলায় চলে গিয়েছে। এর ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ৩৬ লক্ষের বেশি মানুষ। সবথেকে ভয়ানক পরিস্থিতি হয়েছে ধুবরি জেলার। এখানে বন্যার ফলে সাড়ে পাঁচলক্ষের বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। তাঁদের চাষের জমি সহ ঘর বাড়ি সব জলের তলায়।