পরিস্থিতির দিকে তাকিয়ে জরুরি অবস্থা ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

করোনা ঠেকাতে অস্ট্রেলিয়ায় জারি করা হল জরুরি অবস্থা। বুধবার অস্ট্রেলিয়ান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এই ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, মানুষের সুরক্ষায় এই জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি দেশের নাগরিকদের বিদেশ ভ্রমণের ব্যাপারেও তিনি সতর্ক করেন।

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় বলা হয়েছে, সরকার ভাইরাসের বিস্তার রোধের ক্ষেত্রে সচেষ্ট হয়ে কোনও শহর বা এলাকা বন্ধ করে দিতে পারে, কার্ফুও জারি করতে পারে। জরুরি অবস্থার চতুর্থ ধাপে অফিসিয়ালরা জানাচ্ছেন, বিদেশে কোনও দেশে ভ্রমণ করবেন না, একশ’র বেশি মানুষ একত্রিত হতে পারবে না।

[আরও পড়ুনঃমহিলার উপর প্রথম টিকা, আশার আলো জাগছে বিশ্বে]

কনফারেন্সে অস্ট্রেলিয়ান প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ার জীবন বদলে যাচ্ছে।সঙ্গে সমগ্র পৃথিবীও দ্রুত পরিবর্তিত হচ্ছে। প্রতি একশ বছরে এমনটা হয়ে থাকে।

প্রসঙ্গত অস্ট্রেলিয়া ৫০০-র বেশি করোনভাইরাস সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে। এরমধ্যে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। অন্যান্য দেশের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কম হলেও করোনা ঠেকাতে উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন অস্ট্রেলিয়ার কর্মকর্তারা।

বর্তমানে সারা বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ২১৬৯৯৪। এর মধ্যে ৮৯১১ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ৮৪ হাজারেরও বেশি মানুষ সুস্থও হয়েছেন। তবে করোনা আতঙ্ক যায়নি মন থেকে। ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৬৯। এর মধ্যে ৩ জনের মৃত্যু ঘটেছে।