বন্ধ হতে পারে তামাকজাত দ্রব্যের বিক্রি, রাজ্যকে চিঠি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

গুটখাসহ তামাকজাত পণ্য বিক্রয় ও থুতু ফেলা নিষিদ্ধ হোক। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি পাঠালেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে এই পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

রাজস্থান এবং ঝাড়খণ্ডের সরকার ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে এই পদক্ষেপ নিয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী অন্যান্য রাজ্যগুলিকে তামাকজাত পণ্য বিক্রয় ও প্রকাশ্যে থুতু ফেলা নিষিদ্ধ করার জন্যও অনুরোধ করেছেন।

রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রীদের লেখা এক চিঠিতে হর্ষ বর্ধন বলেছিলেন, ‘ধূমপান বাদে অন্যান্য তামাকজাত দ্রব্যের প্রতি আসক্তদের মধ্যে প্রকাশ্যে থুতু ফেলার প্রবণতা থাকে। যা থেকে কোভিড ১৯, যক্ষ্মা, সোয়াইন ফ্লুর মতো সংক্রামক রোগ ছড়ানোর সম্ভাবনা বেড়ে যায়।’

একই সময়ে, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনে করিয়ে দিলেন যে প্রকাশ্যে থুথু ফেললে একটি অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ তৈরি করে, যা সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ায়। এছারাও, দোকান থেকে তামাকজাত দ্রব্য কেনার যে ভিড় হয় তাতেও সংক্রমণ ছড়িয়ে যাওয়ার ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে।

১১ ই মে তারিখে চিঠিতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন যে তামাকজাত পণ্য ব্যবহার সারা বিশ্বে মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এ ছাড়া আইসিএমআর সাধারণ মানুষকে প্রকাশ্য স্থানে ধূমপানহীন তামাকজাত দ্রব্য গ্রহণ না করার এবং থুথু না ফেলা, তামাকজাত পণ্য বিক্রয় নিষিদ্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে।