৩০শে এপ্রিল পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিলে ছাড় দিবে রাজ্য সরকার

বিদ্যুৎ বিলে ছাড় দিবে রাজ্য সরকার । গত ফেব্রুয়ারি মাসের বিদ্যুৎ বিল মার্চ মাসের শেষে বা এপ্রিলের শুরুতে জমা না দিলে লাইন কাটবে না রাজ্য বিদ্যুৎ দপ্তর। শুধু তাই নয় কোন প্রকার সুদ বা ফাইন নেবে না, কেউ ৩০শে এপ্রিলের মধ্যে বিদ্যুৎ বিল জমা দিলে। বুধবার বিদ্যুৎ মন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে খবরটি জানান।

করোনা ভাইরাস এর প্রকোপ বেড়েই চলেছে উত্তরোত্তর। এই পরিস্থিতিতে লকডাউন ঘোষণা করেছে কেন্দ্র সরকার। শুধু জরুরী পরিষেবাগুলি এই আওতার বাইরে রেখেছে প্রশাসন। সকলেই এখন করোনা আতঙ্কে গৃহবন্দী। বিদ্যুৎ মন্ত্রী জানান এই পরিস্থিতিতে বিদ্যুৎ কর্মীরা ভাইরাস সংক্রমণের ভয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে মিটার রিডিং নিতে পারছেন না। আবার অনেক ক্ষেত্রে বিদ্যুৎ কর্মীদের বাইরের লোক হিসেবে বাড়িতে ঢুকতে দিচ্ছেন না গ্রাহকরা।

বিদ্যুৎ দপ্তর এক অভিনব পন্থা নিয়েছে গ্রাহককে বিদ্যুতের বিল মেটানোর ক্ষেত্রে। গত মাসের বিল হিসাবে ২০১৯ সালের মার্চ মাসের রিডিং দিয়েই গ্রাহকদের বাড়ি বাড়ি পাঠানো হবে। তবে লকডাউন ওঠার পর যদি দেখা যায় মার্চ মাসের রিডিং গত বছরের তুলনায় কম, তা হলে পুরোটা মিলিয়ে নিয়েই গ্রাহককে সামগ্রিক সুবিধা দেওয়া হবে বলে জানান রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব।