এবার রিয়াকে নিয়ে সরাসরি মুখ খুললেন তারই স্কুলের বৃদ্ধ প্রিন্সিপাল, ঠিক কি জানালেন অবাক করা কাণ্ড

সুশান্ত মামলার মুখ্য অভিযুক্ত হয়েছেন তিনি। তাঁর বিরুদ্ধে উঠেছে একই সঙ্গে আর্থিক তছরুপ ও মাদক-যোগের। সিবিআই, ইডি ও নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর ত্রিফলা খাঁড়া তাঁর উপর এই মুহূর্তে। এরই মধ্যে ফ্ল্যাশ ব্যাকে গিয়ে উঠে এল রিয়ার স্কুল জীবনের বিভিন্ন কথা। কেমন ছিলেন রিয়া, জানা গেল বেশ কিছু তথ্য।

রিয়ার বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী ভারতীয় সেনার চিকিৎসক থাকার ফলে বিভিন্ন প্রদেশে বাবার সঙ্গে ঘুরতে হয়েছে রিয়াকেও। আগ্রার সেন্ট ক্ল‍্যারিস সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলে বেশ কিছু বছর পড়াশোনা করেন রিয়া। সেখানকার শিক্ষক ও রিয়ার প্রাক্তন বন্ধুদের থেকে প্রকাশ পেয়েছে বেশ কিছু তথ্য।

স্কুলে রিয়া ছিলেন অত্যন্ত মেধাবী ও প্রত‍্যুৎপন্নমতিত্বের অধিকারী। উপস্থিত বুদ্ধি দিয়ে দিতেন প্রশ্নের চটজলদি উত্তর। পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলোতেও ছিলেন পারদর্শী। নবম শ্রেণীতে পড়াকালীন বাস্কেট বলে হারিয়ে দিয়েছিলেন দ্বাদশ শ্রেণীর মেয়েদের। স্কুলের সংসদেও অংশ নিয়েছিলেন রিয়া। ২০০৭ সালে নবম শ্রেণী পাশ করে বাবার বদলী হওয়ায় সেই স্কুল ছাড়তে হয় রিয়াকে। বহু বছর আগেই রিয়া সেই স্কুল ছেড়ে গেলেও এখনো রিয়াকে মনে রেখেছেন স্কুলের শিক্ষকেরা।