ছেলে আজ নামকরা কোরিওগ্রাফার, তা সত্বেও চা বিক্রি করে সংসার চালান ধর্মেশের বাবা

51

ছেলেটির মধ্যে যে এত প্রতিভা প্রথমে আবিষ্কার করতে পারেননি বিচারকরা। কিন্তু গানের তালে মঞ্চ কাপিয়ে দিতেই গীতা কাপুর, রেমো ডি সুজারা বুঝে গিয়েছিলেন ছেলেটার এলেম আছে। সেই ছেলেটার নাম ধর্মেশ ইয়েলান্ড। আজ তিনি বলিউডের নামকরা নৃত্যশিল্পী ও কোরিওগ্রাফার। ছেলের ভাগ্যের চাকা ঘুরে গেলেও বাবা এখনও চা বিক্রি করেন দোকানে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by D 👽 (@dharmesh0011)

ছেলেবেলা থেকে অনেক অভাবের মধ্যে দিয়ে বড়ো হয়েছেন ধর্মেশ। পড়াশোনার পাশাপাশি নাচের প্রতি তার ভালোবাসা ছিলো গভীর। সেই থেকেই শত অনটনের মধ্যেও ছেলের প্রতিভা নষ্ট হতে দেননি বাবা মা। তাই চায়ের দোকান চালিয়ে রোজগার করে ছেলেকে নাচের তালিম নেওয়াতেন।

আরও পড়ুন:   লকডাউনে বন্ধ হবেনা ধারাবাহিক! জানালেন স্বয়ং মিঠাই

একসময়ের কষ্ট এখন সার্থক হয়েছে। যে ড্যান্স ইন্ডিয়া ড্যান্সের মঞ্চে পারফর্ম করতেন ধর্মেশ সেখানেই তিন এখন বিচারকের আসনে। কিন্তু বাবা এখনও চায়ের দোকানে চা বেচেন। যা নিয়ে বিতর্ক দানা বাঁধে। ধর্মেশ জানাচ্ছেন এক সময় তিনিও পিয়নের কাজ করতেন ,শিশুদের নাচ শেখাতেন এগুলো ছিল তার শিকড়। ঠিক তেমনি ছেলে বারন করা সত্ত্বেও বাবা এখনও পুরোনো পেশাকেই ধরে আছেন ভালবাসার তাগিদে।

আরও পড়ুন:   ফের জিৎ-কোয়েলের জুটি কাঁপালো ডান্স বাংলা ডান্সের মঞ্চ - দেখুন ভিডিও

ছেলে বলিউডের সবথেকে বড় ডান্স রিয়ালিটি শো এর বিচারক, কয়েকটি সিনেমাতেও ব্যকগ্রাউন্ড ডান্সার, এত নামডাক আর অর্থ থাকলেও ধর্মেশের বাবা ভোলেননি তার কঠিন সময়। তাই লজ্জা ছেড়ে তিনি এখনো চা বানিয়ে খদ্দেরের কাছে বিক্রি করেন।

আরও পড়ুন:   আর ছোট্টটি নেই পটলকুমার, দুর্দান্ত নাচ করে সোশ্যাল মিডিয়া কাঁপাচ্ছে হিয়া, ভাইরাল ভিডিও