মনের মানুষকে না পেয়ে সারাজীবন অবিবাহিত লতা মঙ্গেশকরের জীবন কাহিনী হার মানাবে বলিউড সিনেমার গল্পকে

36

জনপ্রিয় গায়িকা লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) অনবদ্য কণ্ঠস্বরে সকলেই মুগ্ধ। প্রবাদপ্রতিম এই গায়িকা এখন‌ও অবধি ৩৬টি ভারতীয় ভাষাতে গান রেকর্ড করেছেন। শুধু হিন্দি ভাষাতেই ১০০০ এর‌ও উপরে গান রয়েছে তার। যে সুর সম্রাজ্ঞীর কন্ঠে সকলেই মুগ্ধ তার ব্যক্তিগত জীবনে কিন্তু তিনি একা।

হ্যাঁ কেরিয়ারে সফলতার শীর্ষে পৌছলেও লতা মঙ্গেশকর ব্যক্তিগত জীবনে একাই থেকে গেলেন। কোনদিনও বিয়ে করেননি তিনি। বরাবরই অবিবাহিত থেকে গেলেন। কিন্তু তার এই একতরফা সুরের সাধনা করার পিছনে কী কারণ রয়েছে? কেন সুরের সাধনা ছেড়ে সংসার ধর্মে মন দিলেন না তিনি? কেনই বা চিরকাল অবিবাহিতই রয়ে গেলেন? এই প্রশ্নের উত্তর সকলের মনেই আসে আর আসাটাও স্বাভাবিক।

আরও পড়ুন:   অভিনেত্রীর চতুর্থ স্বামী হতে চলেছেন অভিরুপ নাগ? শ্রাবন্তীর পোস্ট ঘিরে তুঙ্গে জল্পনা

শোনা যায় লতা মঙ্গেশকর একসময় কাউকে ভালোবেসে ছিলেন, কিন্তু তার সেই ভালোবাসা পূর্ণতা পায়নি। প্রেমে সফল হননি বলেই লতা চির অবিবাহিত থেকে গিয়েছেন, এমনটাই শোনা যায়। শোনা যায় দুঙ্গরপুরের রাজ ঘরানার মহারাজ রাজ সিং এর প্রেমে পরেছিলেন লতা। ইনি সম্পর্কে লতার দাদার ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন।

আরও পড়ুন:   চুপিসারে প্রেম করছেন ‘মিঠাই’ ধারাবাহিকের সোম-তোর্সা! পরিণতি পাবে সম্পর্ক, উদ্বিগ্ন অনুরাগীরা

গায়িকার সেই প্রেম পরিণতি পায় নি। হ্যাঁ রাজ ঘরানার ছেলে রাজ সিং নাকি বাবা-মাকে প্রতিজ্ঞা করেছিলেন যে, কোন সাধারণ ঘরের মেয়েকে তিনি রাজবংশের বউ করে আনবেন না। সেই প্রতিজ্ঞা বজায় রেখেছিলেন রাজ সিং। তিনি কখনো বিয়েই করেন নি।

লতার থেকে ৬ বছরের বড় রাজ সিং আদর করে লতাকে মিট্টু বলে ডাকতেন আর পকেটে সবসময় একটি রেকর্ডার নিয়ে ঘুরতেন তিনি, সেই রেকর্ডারের মধ্যে রেকর্ড করা থাকতো লতা মঙ্গেশকরের বিখ্যাত কিছু গান। ২০০৯ সালে প্রয়াত হন তিনি, তবে রাজ সিং ব্যতীত লতার দীর্ঘ জীবনে কখনো আর কারো সঙ্গে নাম জড়ায়নি গায়িকার।

আরও পড়ুন:   বলিউডের বিরুদ্ধে একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ, কঙ্গনার জন্য স্পেশাল সিকিউরিটির ব্যবস্থা করল কেন্দ্র

অবিবাহিত থাকার কারণ হিসেবে অনেকে এই প্রেমের কথা বললেও, লতা মঙ্গেশকরের দাবি ছিল অন্য। তিনি বলেছিলেন গোটা সংসারের দায়িত্ব তার কাঁধে থাকার জন্য আলাদা করে নিজের সংসার বানানোর কথা তিনি ভাবেন নি।