ঠোঁটে নেই লিপস্টিক, কপালে নেই টিপ! জুন আন্টি হলেন এখন শ্বেত বসনা ‘বিনোদিনী’

16

শ্রীময়ী ধারাবাহিকের কুটিলা জুন আন্টি যেন সাদা কাপড়ে ঝড় তুলছেন আমজনতার বুকে। ঠোঁটে নেই তার ঘন লিপস্টিক, নেই বড় টিপ, কাজল? সেতো বিদায় জানিয়েছে খালি চোখের মায়া দেখে। শুধু একটা নাকের নথ বা নাকের অলংকার বিন্দু হয়ে জ্বলজ্বল করছে তার নাকে। কারণ তিনি এখন রঙচঙে জুন আন্টি নন, তিনি হলেন শ্বেত বসনা ‘বিনোদিনী’।

সদ্য জুন আন্টি ওরফে ঊষসী চক্রবর্তী এমনই মায়াময় রূপে ধরা দিলেন। তার ঊর্ধ্বাঙ্গ একেবারে অনাবৃত, পরনে সাদা জামদানি, খোলা দীর্ঘ চুল আর চোখে তৃষ্ণা। অবশ্য, ছবির পাশে লেখা রয়েছে— ‘তার লাগি পথ চেয়ে আছি, পথে যে জন ভাসায় …!’

আরও পড়ুন:   'বিশ্বাস করতে পারছি না', অভিনেতা সিদ্ধার্থের অকাল প্রয়াণে শোকপ্রকাশ যশ-নুসরতের

চোখের বালি’র বিনোদিনীর ভঙ্গিতে ধরা দিয়েছেন ঊষসী। এমন সাজে আমরা কিছু বছর আগে ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে দেখেছিলাম। একটা নেশা লেগেছিল অমন মেক আপ বিহীন সাজ দেখে, এবারে ঊষসী তার ধারাবাহিকের চরিত্র থেকে বেরিয়ে একটু অন্য মুডে নিজেকে মেলে ধরলেন। তাহলে কি সত্যি সত্যি প্রেমের সন্ধানে মরিয়া অভিনেত্রী?

আরও পড়ুন:   শোভন-বৈশাখীর পর জুন-অনিন্দ্যর রোমান্সে মেতে উঠেছে টলিপাড়া

জুন আন্টি হয়ে যেই জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তিনি, তাতে করে পাত্রের অভাব তার হবে না, তবে মনের মানুষ পাওয়া চারটি খানি কথা নয়। পর্দায় যতই রোম্যান্স করুন না কেন বা মেক আপ রুমে হিন্দি গানে যতই ধামাকা করুন, বাস্তবে তিনিও বিনোদিনী মুডে সর্বনাশের আশা করছেন। এই সাজ প্রসঙ্গে সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন,”ওটা পুরোটাই পর্দাসুলভ। পর্দায় যা সর্বনাশ হওয়ার, জুন আন্টির হয়ে গিয়েছে। বাস্তবের ঊষসী চাইছে, এ রকমই সর্বনাশ হোক তার! তারই পথ চেয়ে বসে আছি।” এখানে ‘ওটা’ বলতে মেক আপ রুমের ভিতরে সুদীপ মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে রোম্যান্স। শেষে অভিনেত্রী মজার ছলে এও জানান, ‘চোখের বালি’র ‘বিনোদিনী’ হতে তিনি রাজি। যদি টোটা ‘মহেন্দ্র’ হন!