একটানা বৃষ্টিতে বাংলায় ধেয়ে আসছে বড়সড় দুর্যোগ! লাল সতর্কবার্তা জারি করল আবহাওয়া দপ্তর

5

এক টানা বৃষ্টিতে কলকাতার (Kolkata) অবস্থা একদমই শোচনীয়। গোটা এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। বঙ্গোপসাগরের উপকূলবর্তী এলাকায় অসংলগ্ন বাংলাদেশের উপর নিম্নচাপ রয়েছে। যার জন্য এই ভারী বৃষ্টিপাত (Rainfall Update) জারি থাকতে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। কলকাতার পাশাপাশি ভারী বৃষ্টি হতে পারে জেলাগুলিতেও। এই অবস্থায় ইতিমধ্যেই জমা জল বার না করলে অবস্থা আরো শোচনীয় হবে। এ কথা মাথায় রেখে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নিয়েছে কলকাতা পৌরসভা। সচল রাখা হয়েছে ৭৪ পাম্পিং স্টেশন। এ ছাড়াও অতিরিক্ত পাম্প বসিয়েও বেশ কয়েকটি এলাকা থেকে জল বার করার কাজ জোর কদমে চলছে।

আরও পড়ুন:   ফের খারাপ খবর! আত্মহত্যা করলেন টলিউড অভিনেত্রী, শোকের ছায়া অভিনয় জগতে

লাগাতার বৃষ্টিপাত চলছে কলকাতা থেকে শহরতলী। হাওয়া অফিস বলেছে বঙ্গোপসাগরে একটি সুস্পষ্ট নিম্নচাপ অবস্থান করায় এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, এর সাথে রয়েছে মৌসুমী অক্ষরেখা। দক্ষিণবঙ্গে একাধিক জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আজও সূর্যিমামার দেখা পাওয়া যায়নি। কলকাতায় দফায় দফায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হতে পারে।

আরও পড়ুন:   সাতপাকে বাঁধা পড়লেন গায়িকা ইমন চক্রবর্তী ও গায়ক নীলাঞ্জন ঘোষ, রইলো বিয়ের সব ছবি

এছাড়াও এদিকে শুক্রবার থেকে পশ্চিমের জেলাগুলিতে বৃষ্টির পরিমাণ অধিক হবে এবং পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টির পরিমাণ কিছুটা কমতে পারে। পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ও পশ্চিম বর্ধমান, এই তিন জেলায় রয়েছে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। তবে দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আর নেই।

গত ২৪ ঘন্টায় দুই মেদিনীপুরে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হতে দেখা গেছে। আগামী একদিনও দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝারগ্রাম, বীরভূম, ও পূর্ব বর্ধমান জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ২৪ ঘন্টা তীব্র হওয়া এবং সমুদ্র উত্তাল থাকার কারণে মৎস্যজীবীদের মাছ ধরতে যাওয়ার সর্তকতা এখনো জারি রয়েছে। আগামী ২৪ ঘন্টায় এই নিম্নচাপটি বিহার ও ঝাড়খন্ডর দিকে অগ্রসর হবে।