করে দেওয়া হবে বাড়ি, সঙ্গে দেওয়া হবে মাসিক ভাতা! পুজোর আগে পুরোহিতদের বিশেষ উপহার দিল রাজ্য

চলতি বছর করোনা আবহে শুরুর দিকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল মন্দির। ফলে চরম সমস্যায় পড়েছিল পুরোহিতরা। তবে, সামনে পুজো আসছে এইসময় পুরোহিতের জন্য এবার সুখবর নিয়ে আসলো খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।রাজ্যের পুরোহিতদের এবার ভাতা দেবে রাজ্য সোমবার নবান্ন থেকে সাংবাদিক সম্মেলন করে এমনটাই ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন নবান্ন সভাঘরে সাংবাদিক বৈঠক থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা করেন, দুর্গাপুজোর সময় থেকেই রাজ্যের আট হাজার পুরোহিত প্রতি মাসে ১০০০ টাকা করে ভাতা পাবেন। পরবর্তী সময় এই সংখ্যাটা আরও বাড়বে। শুধু ভাতাই নয়, আর্থিকভাবে পিছিয়ে থাকা পুরোহিতদের ‘বাংলা আবাস যোজনা’য় ঘরও তৈরি করে দেবে রাজ্য।

এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ‘যাঁরা গরিব পুরোহিত, যাদের থাকার জায়গা নেই তাদের ভাতার সঙ্গে বাংলা আবাস যোজনায় বাড়িও বানিয়ে দেব। ওয়াকফ বোর্ডের তরফে মোয়াজ্জেমদের ভাতা দেওয়া হয়। হিন্দু ধর্মের পুরোহিতদেরও পাশে দাঁড়াচ্ছে রাজ্য। তাঁদের সঙ্গে চারবার বৈঠক করেছি আমরা। তাঁদের দুরবস্থার কথা আমাকে জানিয়েছেন। এর পিছনে কেউ অন্য কারণ দেখবেন না। খ্রিষ্ট ধর্মের যাজক, পাদরিরা চাইলে তাঁদের পাশেও দাঁড়াবে রাজ্য সরকার’। যদিও মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণার পর শুরু হয়েছে চাপানউতর। সামনেই ২১ -র নির্বাচন। রাজ্যের অন্য রাজনৈতিক দলগুলি শাসকদলের এই সিদ্ধান্তকে তারই চাবিকাঠি বলে মনে করছেন।